Skip to content

ICC-র চাপে ত্রাহি ত্রাহি দশা জয় শাহদের! পাকিস্তানেই হয়ত যেতে হবে টিম ইন্ডিয়াকে Sports: India vs Pakistan ICC BCCI champions Trophy 2024 hosting neutral venue

BCCI, India vs Pakistan, ICC, Champions Trophy 2025

Champions Trophy 2025: বিসিসিআই চাইলেও সরকারি আপত্তিতে আটকে যেতে পারে ভারতীয় দলের পাকিস্তান সফর। আর, সেই কারণে আগামী বছর চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি পাকিস্তানে না-ও হতে পারে। বদলে, সংযুক্ত আরব আমিরশাহির মত তৃতীয় কোনও দেশে হতে পারে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ম্যাচ। পিটিআই সূত্রে এমনটাই জানা গিয়েছে।

এই ব্যাপারে বিসিসিআইয়ের এই কর্তা পিটিআইকে জানিয়েছেন, পাকিস্তানের মাটিতে ভারত গিয়ে খেলবে কি না, সেটা আইসিসি ঠিক করে দিতে পারে না। বর্তমানে দুবাইয়ে আইসিসির সভা চলছে। আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি-মার্চে হতে চলা চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিটি সভার এজেন্ডায় নেই। তবে নব-নির্বাচিত পিসিবি চেয়ারম্যান মহসিন নকভি জানিয়েছেন যে তিনি বিসিসিআই সচিব জয় শাহের পাশাপাশি আইসিসির অন্যান্য কর্তাদের সঙ্গে এই টুর্নামেন্টের ব্যাপারে কথা বলতে চান। যাতে পাকিস্তানের মাটিতেই চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির আয়োজন করা সম্ভব হয়।

এর আগে একদিনের বিশ্বকাপে খেলতে ভারতে এসেছিল পাকিস্তান ক্রিকেট দল। মহসিন চান, পালটা ভারতীয় দলও পাকিস্তানে গিয়ে খেলুক। তবে, আইসিসির এক শীর্ষকর্তা এই ব্যাপারে জানিয়েছেন, এই ব্যাপারে বিসিসিআইয়ের সিদ্ধান্তই শেষ কথা নয়। সরকারের সিদ্ধান্তটা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। যদিও বিসিসিআই সচিব জয় শাহর বাবা অমিত শাহ কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, কিন্তু ভারত সরকার অতীতের কথা মাথায় রেখে এখনই পাকিস্তানের দিকে বন্ধুত্বের হাত বাড়াতে নারাজ। তাই চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি আয়োজনের সম্ভাব্য স্থান হিসেবে সংযুক্ত আরব আমিরশাহির নামকে উপেক্ষা করা যাচ্ছে না।

এই ব্যাপারে আইসিসির এক প্রশাসনিক কর্তা বলেন, ‘বোর্ড মিটিংয়ে কোনও সদস্য বিষয়টি তুলতেই পারেন। প্রাথমিকভাবে কোনও সিদ্ধান্তে না আসা গেলে ভোটাভুটি হবে। কোনও ভারত সরকার যদি বলে বসে যে ভারতীয় দল পাকিস্তানে খেলতে যাবে না, সেক্ষেত্রে কিছু করার নেই। আইসিসিরও এক্ষেত্রে হাত-পা বাঁধা। সেক্ষেত্রে তৃতীয় কোনও নিরপেক্ষ দেশে খেলা হতে পারে।’

সাম্প্রতিক অতীতে ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড পাকিস্তানের মাটিতে খেলেছে। কিন্তু, এই সব দেশের দলগুলোর পাকিস্তানে খেলা আর ভারতের পাকিস্তানে খেলার মধ্যে আকাশ-পাতাল তফাত। দুই প্রতিবেশী দেশের সম্পর্কের জন্যই ব্যাপারটা অন্যরকম। এই ব্যাপারে বিসিসিআইয়ের এক প্রাক্তন কর্তা বলেন, ‘এটা ভুললে চলবে না যে পাকিস্তানে ভারতীয়দের আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা অন্য দেশের নাগরিকদের তুলনায় শতগুণ বেশি।’

আরও পড়ুন- বোর্ডের চুক্তিতে বাদ পড়েও হেলদোল নেই! মালিঙ্গাকে নকল করে ফের শিরোনামে ঈশান কিষান, দেখুন ভিডিও

তবে, বিসিসিআইয়ের একাংশের সরকারের অনুমতি দেওয়া নিয়ে সন্দেহ থাকলেও চলতি বছরের জানুয়ারিতেই ভারতীয় ডেভিস কাপ দল বিশ্ব গ্রুপ প্লে-অফ টাইয়ের জন্য ইসলামাবাদে গিয়েছিল। সেখানে খেলোয়াড় থেকে সাপোর্ট স্টাফ, সকলেই নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন। তবে, ডেভিস কাপের দলের চেয়ে সমর্থকদের মধ্যে ভারতীয় ক্রিকেট দলের ওজন অনেকে বেশি। তাই, তাঁদের আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা যে একেবারেই নেই, সেকথা হলফ করে বলতে পারছে না বিসিসিআইও।



সংবাদ সূত্র