Skip to content

‘IB’ ‘RAW’ থেকে বেছে বেছে সরিয়ে দেওয়া হচ্ছে মুসলিম IPS দের! চাঞ্চল্যকর অভিযোগ ওয়েইসির

বাংলা হান্ট ডেস্ক : ফের মোদি সরকারের (Modi Government) বিরুদ্ধে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ করলেন মিম প্রধান আসাদউদ্দিন ওয়াইসি (Asaduddin Owaisi)। কয়েকদিন আগেই সংসদের বর্ষাকালীন অধিবেশনে সামঞ্জস্যপূর্ণভাবে সংখ্যালঘু বিচারপতি নিয়োগ করা হচ্ছে না বলে প্রশ্ন তুলেছিলেন ওয়াইসি। আর এবার কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা ‘আইবি’ (Intelligence Bureau) এবং ‘র’ (Research and Analysis Wing) থেকে বেছে বেছে মুসলিম আইপিএস (Indian Police Service) আধিকারিকদের সরিয়ে দেওয়ার বিস্ফোরক অভিযোগ তুললেন তিনি। তাঁর অভিযোগ, কেন্দ্র সরকার মুসলিমদের উপর বিশ্বাসই করতে পারছে না। তাই এই সমস্ত এজেন্সি থেকে তাদের সরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। যা একেবারেই ঠিক নয়।

আসাদউদ্দিন ওয়াইসির অভিযোগ, ‘ভারতের ইতিহাসে এই প্রথম হয়তো ইন্টেলিজেন্স ব্যুরোতে সিনিয়র পদে কোনও মুসলিম আধিকারিক থাকবে না।’ এ নিয়ে বিজেপি সরকারকে নিশানা করে তিনি বলেন, ‘বিজেপি মুসলিমদের সন্দেহের চোখে দেখে। তাই ‘আইবি’ এবং ‘র’–এর মতো গুরুত্বপূর্ণ এজেন্সি থেকে মুসলিমদের সরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। এখন এই সমস্ত এজেন্সিগুলি শুধুমাত্র সংখ্যাগুরুদের কর্মস্থলে পরিণত হয়েছে। মুসলিমদের শুধুমাত্র সন্দেহ করা হয়। কখনও তাদের নাগরিক হিসেবে দেখা হয় না।’

এই অভিযোগের উপর ভিত্তি করে টুইটারে একটি সংবাদ মাধ্যমের একটি প্রতিবেদন পোস্ট করেন আসাদউদ্দিন ওয়াইসি। প্রতিবেদন অনুযায়ী, এই প্রথম আইবিতে কোনও সিনিয়র আধিকারিক পদে মুসলিম আইপিএস নেই। এর আগে এই এজেন্সিতে আইপিএস অফিসার ছিলেন এসএ রিজভী। তিনি স্পেশাল ডিরেক্টর পদে ছিলেন। তবে বর্তমানে তিনি জাতীয় বিপর্যয় মোকাবেলা দফতরে রয়েছেন। তাতে উল্লেখ করা হয়েছে, সাম্প্রতিক বছরগুলিতে আইবিতে মুসলিম আইপিএস আধিকারিকদের সংখ্যা উল্লেখযোগ্যভাবে হ্রাস পেয়েছে।

আরও পড়ুন : আপনার এলাকায় কেমন থাকবে আবহাওয়া ? কি বলছে আবহাওয়া দপ্তর 

আরও পড়ুন : আজ কেমন কাটবে আপনার দিন, জানুন আজকের রাশিফল 

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, আগের সরকারের আমলে এই এজেন্সিগুলিতে মুসলিম আধিকারিকরা সিনিয়র পদে থাকলেও বর্তমান সরকারের আমলে তা ক্রমাগত কমে যাচ্ছে। এর আগে আসিফ ইব্রাহিম আইবির ডিরেক্টর পদে ছিলেন। অসম ক্যাডারের আইপিএস আধিকারিক রফিউল আলমও এজেন্সির উচ্চপদে ছিলেন। ১৯৮৯ ব্যাচের আইপিএস অফিসার এসএ রিজভীকে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক আইবির উচ্চ পদে বসানোর অনুমোদন দিয়েছিল।

কিন্তু দেখা যাচ্ছে হঠাৎই তাঁকে বদলি করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বিপর্যয় মোকাবেলার স্পেশাল ডিরেক্টর পদে তাঁকে বদলি করা হচ্ছে তাঁকে। ২০২৬ সালের ২১ জানুয়ারি পর্যন্ত তাঁর কাজের মেয়াদ রয়েছে।

বার্তা সূত্র