Skip to content

হিন্দু দেবতাদের না মানায় বিক্ষোভ, কেজরিওয়ালের মন্ত্রিসভা থেকে ইস্তফা বৌদ্ধ মন্ত্রীর

হিন্দু দেবতাদের না মানায় বিক্ষোভ, কেজরিওয়ালের মন্ত্রিসভা থেকে ইস্তফা বৌদ্ধ মন্ত্রীর

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিজেপির লাগাতার বিক্ষোভের মুখে পড়ে ইস্তফা দিলেন দিল্লির আপ মন্ত্রী (Delhi AAP Minister) রাজেন্দ্র পাল গৌতম। ধর্মান্তরের একটি জনসভায় গিয়ে হিন্দু দেবতাদের সম্পর্কে অবমাননাকর মন্তব্য করার অভিযোগ উঠেছিল তাঁর বিরুদ্ধে। সেই কারণেই রাজেন্দ্রর বিরুদ্ধে প্রতিবাদে সরব হয়েছিল বিজেপি। দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের (Arvind Kejriwal) কাছে এই মন্ত্রীকে সরিয়ে দেওয়ার আরজিও জানিয়েছিল বিজেপি।

ভারতের সংবিধান প্রণেতা বি আর আম্বেদকর বৌদ্ধ ধর্ম গ্রহণ করেছিলেন। তাঁর ধর্মান্তরের দিনটিকে স্মরণ করে ধম্মচক্র প্রবর্তন দিন নামে একটি অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়। গত ৫ অক্টোবর সেই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজেন্দ্র (Rajendra Gautam)। প্রতিবছর এই দিনটি স্মরণ করে প্রচুর সংখ্যক মানুষ বৌদ্ধধর্মে দীক্ষিত হন। সেই সঙ্গে আম্বেদকরের ২২টি বাণী উচ্চারণ করেন রাজেন্দ্র-সহ উপস্থিত জনতা।

এই ২২টি বাণীর মধ্যে রয়েছে হিন্দু দেবতাকে অস্বীকার করার বাণী। সকলের সঙ্গে রাজেন্দ্রও এই বাণীগুলি উচ্চারণ করেন। সেখানে তিনি বলেন, “ব্রহ্মা, বিষ্ণু, মহেশ্বর-কোনও দেবতার প্রতিই আমার বিশ্বাস নেই। তাই আমি কারোওরই উপাসনা করি না।” রাজেন্দ্রর এই বাণী উচ্চারণের ভিডিও ভাইরাল হয়ে যায়।

[আরও পড়ুন: ‘হাত কাটুন, মাথা কাটুন, বেছে বেছে মারুন ওদের’, VHP’র সভা থেকে হিংসা ছড়ানোর অভিযোগ] 

আম আদমি পার্টির মন্ত্রীর এই ভিডিও ভাইরাল হতেই তীব্র নিন্দা করে বিজেপি (BJP)। বলা হয়, এই অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে হিন্দু ও বৌদ্ধ-দুই ধর্মেরই অপমান করেছেন রাজেন্দ্র। সেই সঙ্গে হিন্দু বিদ্বেষ উসকে দেওয়ার অভিযোগ আনা হয় তাঁর বিরুদ্ধে। পালটা দিয়ে দিল্লির সমাজকল্যাণ মন্ত্রী বলেন, “আমি বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী। সেই নিয়ে কারওর অসুবিধা হচ্ছে কেন? সংবিধানে সমস্ত ধর্মপালন করার স্বাধীনতা রয়েছে।”

সরকারি ভাবে এই ঘটনা নিয়ে কোনও প্রতিক্রিয়া দেয়নি আম আদমি পার্টি। তবে সূত্র মারফত জানা গিয়েছিল, অরবিন্দ কেজরিওয়াল এই গোটা ঘটনায় বেশ ক্ষুব্ধ। তবে মন্ত্রিত্ব থেকে ইস্তফা দিয়ে বিজেপিকেই দুষেছেন রাজেন্দ্র। তিনি বলেছেন, “দেশের কয়েক কোটি মানুষ এই শপথ নেন। কিন্তু এই নিয়ে বিজেপি অযথা অশান্তি তৈরি করছে। আমাকে ও আমার দলকে অপমান করার চেষ্টা করছে।”

[আরও পড়ুন:গাড়ির সিট খুলে ভিতরে ঠাসাঠাসি করে রাখা গরু! বাংলা-ঝাড়খণ্ড সীমান্তে বাজেয়াপ্ত বড় গাড়ি]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ

নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে



বার্তা সূত্র