Skip to content

সোমবারও ঝাড়্গ্রাম-বাঁকুড়ায় অবরোধ-বিক্ষোভ আদিবাসীদের

সোমবারও ঝাড়্গ্রাম-বাঁকুড়ায় অবরোধ-বিক্ষোভ আদিবাসীদের

পূর্ব মেদিনীপুরের একটি সভা থেকে রাষ্ট্রপতি সম্পর্কে বেলাগাম মন্তব্য করেন রাজ্যের কারামন্ত্রী। বিরোধী দলনেতার বক্তব্যের জবাবে আরও বেলাগাম হয়ে পড়েন অখিল গিরি। 

বুধবার পঞ্চায়েত ভোটের প্রস্তুতি হিসেবে ঝাড়গ্রাম যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার আগে রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুকে নিয়ে ‘অখিল-মন্তব্য’-এর জের অব্যাহত। তার জেরেই সোমবার ফের পথে নামলেন আদিবাসীরা। পথ অবরোধ করে দাবি করা হল, অবিলম্বে গ্রেফতার করতে হবে কারামন্ত্রী অখিল গিরিকে। পাশাপাশি আদিবাসীদের প্রাপ্য অধিকার থেকে বঞ্চিত করার দাবিতে সোচ্চার হন তাঁরা।

সোমবার সকাল থেকে বাঁকুড়ার রাইপুর সহ ঝাড়গ্রামের নয়াগ্রাম-তপসিয়া-জামবুনি এলাকায় শুরু হয় আদিবাসী বিক্ষোভ। যদিও রবিবার সকাল থেকেই অখিলের মন্তব্যের প্রতিবাদে রাস্তায় নামেন আদিবাসীদের বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন। তবে শুধু বিক্ষোভ নয়, একই সঙ্গে ডেপুটেশন দেওয়ারও সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তাঁরা। কেউ মন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করেছেন, কেউ আবার বলছেন ক্ষমা চাইতে হবে। এমনকি, তৃণমূলের মন্ত্রী জ্যোৎস্না মাণ্ডির গাড়ি ঘিরেও বিক্ষোভ দেখানো হয় বলে খবর।

আরও পড়ুন- Fake Excise Website: রাজ্য আবগারি দফতরের নামে জাল ওয়েবসাইট, দেওয়া হচ্ছে মদের দোকানের নতুন লাইসেন্সের টোপ

পূর্ব মেদিনীপুরের একটি সভা থেকে রাষ্ট্রপতি সম্পর্কে বেলাগাম মন্তব্য করেন রাজ্যের কারামন্ত্রী। বিরোধী দলনেতার বক্তব্যের জবাবে আরও বেলাগাম হয়ে পড়েন অখিল গিরি। বক্তৃতার একটি ভিডিয়োতে মন্ত্রীকে বলতে শোনা যায়, ‘বলে দেখতে ভাল নয়। কী রূপসী! কী দেখতে ভাল! আমরা রূপের বিচার করি না। তোমার রাষ্ট্রপতির চেয়ারকে আমরা সম্মান করি। কিন্তু তোমার রাষ্ট্রপতি কেমন দেখতে বাবা?’ অখিলের এই বক্তব্যের পরই তীব্র সমালোচনায় সামিল হয় সব মহলে। বিতর্কের পরেই তৃণমূলের পক্ষ থেকে জানানো হয়, এই বক্তব্য অখিলের নিজস্ব। এই মত কোনওভাবেই দল সমর্থন করে না।



বার্তা সূত্র