Skip to content

‘সরকারের কাছে আর কোনো দাবি করব না, লড়াই করব’

‘সরকারের কাছে আর কোনো দাবি করব না, লড়াই করব’

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সেলিমা রহমান বলেছেন, আজ থেকে সরকারের কাছে আমরা আর কোনো দাবি করব না। জনগণ আমাদের সঙ্গে আছে। এখন থেকে আমরা লড়াই করব। লড়াই করে খালেদা জিয়াসহ সকল রাজবন্দিকে মুক্ত করব।

শনিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে প্রেস ক্লাবের সামনে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া, স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসসহ সকল রাজবন্দির মুক্তি দাবি ও নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের লাগামহীন মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে এ বিক্ষোভ সমাবেশ আয়োজন করে বাংলাদেশ নাগরিক অধিকার আন্দোলন।

সেলিমা রহমান বলেন, ‘বাংলাদেশের মানুষ এখন কথা বলতে পারে না, প্রতিবাদও করতে পারে না। মহান ভাষা আন্দোলনের মাসেও তারা কোনো কথা বলতে পারছে না। এই ফ্যাসিস্ট সরকারের বিরুদ্ধে কথা বলতে গিয়ে, গণতন্ত্রের জন্য লড়াই করতে গিয়ে বিএনপির অসংখ্য নেতা-কর্মী কারাগারে গেছেন। তারা এখন কারাগারে নির্যাতন-নিপীড়ন শিকার হচ্ছেন।’

তিনি বলেন, ‘রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে বেগম খালেদা জিয়াকে সরকার কারাবন্দি করে রেখেছেন। শুধু তাই নয়, খালেদা জিয়াকে তিলে তিলে মারার ষড়যন্ত্র করেছেন তারা। আজকে তিনি মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করছেন। তবুও সরকারের কাছে মাথানত করেননি।’

ওবায়দুল কাদেরের উদ্দেশে সেলিমা রহমান বলেন, ‘বিএনপি সন্ত্রাসী দল নয়, আওয়ামী লীগ সন্ত্রাসী দল। লগি-বৈঠা দিয়ে এরা মানুষ মারে, বাসে আগুন দিয়ে মানুষ হত্যা করে। এরা ছালীগের হাতে পিস্তল, লাঠি, দা তুলে দিয়েছে। তাই শিক্ষাঙ্গাণে একদিকে টেন্ডার বাজি চলছে, অন্যদিকে মারামারি। সারাদেশে খুন-গুম করে বেড়াচ্ছে ছাত্রলীগ-যুবলীগের ক্যাডাররা।’

তিনি বলেন, ‘সামনে রমজান আসছে। দ্রব্যমূল্য নিয়ে সাধারণ মানুষ চিন্তিত। জিনিসপত্রের দাম আগুনছোঁয়া। সরকার প্রতিদিন বলছে দাম কমাবে। কিন্তু দাম কমবে না। এই সরকার সিন্ডিকেট নিয়ন্ত্রণ করবে না। কারণ, এর সঙ্গে জড়িত সরকার দলীয় লোকজন।’

আয়োজক সংগঠনের আহ্বায়ক ও কৃষক দলের সহ-সাধারণ সম্পাদক এম. জাহাঙ্গীর আলম এবং সদস্য সচিব ইঞ্জি. মোফাজ্জল হোসেন হৃদয়ের সঞ্চালনায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল আউয়াল মিন্টু, নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ, ঢাকা জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক নিপুণ রায় চৌধুরী, কৃষকদলের সহ-সভাপতি আ ন ম খলিলুর রহমান ভিপি ইব্রাহিম, তাঁতীদলের যুগ্ম আহ্বায়ক ড. কাজী মনিরুজ্জামান মনির, জাগপার মির আমীর হোসেন আমু ও কৃষক দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহ আব্দুল্লাহ আল বাকী প্রমুখ।

সারাবাংলা/এজেড/এনএস



বার্তা সূত্র