Skip to content

সন্দেশখালিতে RSS-এর বাসা, শাহজাহানকে ‘টার্গেট’ ইডির! বিধানসভায় বি.স্ফোরক মুখ্যমন্ত্রী

সন্দেশখালিতে RSS-এর বাসা, শাহজাহানকে ‘টার্গেট’ ইডির! বিধানসভায় বি.স্ফোরক মুখ্যমন্ত্রী

সন্দেশখালিতে আরএসএসের বাসা আছে। বাইরে থেকে লোক নিয়ে গিয়ে গোলমাল পাকাচ্ছে বিজেপি। শাহজাহানকে ‘টার্গেট’ করে সন্দেশখালিতে ঢুকেছে ইডি। বৃহস্পতিবার, বিধানসভায় (Assembly) বাজেট বক্তৃতায় বিস্ফোরক অভিযোগ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee)। তিনি জানান, সন্দেশখালির ঘটনা নিয়ে অত্যন্ত কড়া রাজ্য সরকার। ইতিমধ্যেই ১৭জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তবে, এই ঘটনার সূত্রপাত ED-র জন্য- অভিযোগ মমতার। তিনি বলেন, ‘‘সন্দেশখালিতে শাহজাহানকে ‘টার্গেট’ করে ED ঢুকল। সেই নিয়ে গোলমাল করে সংখ্যালঘু এবং আদিবাসীদের মধ্যে ঝামেলা লাগানো হচ্ছে। ওখানে আরএসএসের (RSS) বাসা রয়েছে। এমনিতেই ওটা সংঘর্ষপ্রবণ এলাকা। সেখানে মুখে মাস্ক পরে গোলমাল করা হচ্ছে। বহিরাগতরাই সন্দেশখালিতে এত গোলমাল পাকাচ্ছে।’’

বিধানসভায় মমতা বলেন,” ওখানে আগে ইডি(ED) ঢুকল। এখন বাইরে থেকে লোক ঢুকিয়ে মহিলাদের সামনে রেখে এসব করছে। কারও সমস্যা থাকতেই পারে। তার তদন্ত হবে। তা নয়, আগেই কাকে কান নিয়ে পালাল বলে রব উঠল, আর এরাও দৌড়ল!

সন্দেশখলির অশান্তির ব্লু প্রিন্ট ফাঁস করে দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ”আগে টার্গেট শেখ শাহজাহান। ওকে টার্গেট করে ইডি ঢুকল। তারপরেই সবাইকে বের করে দিয়ে আদিবাসী-সংখ্যালঘুদের মধ্যে ঝগড়া লাগিয়ে দিল। কারও কোনও ক্ষোভ বিক্ষোভ থাকতেই পারে, আমাদের তো মহিলা দল আছে ওখানে। পুলিশেরও একটা মহিলা দল আছে, ঘরে ঘরে যাচ্ছে, কার কী অভিযোগ শুনছে। শুনে এসে রিপোর্ট করার পর যদি কারও সমস্যা থাকে সেটা নিয়ে নিশ্চয় আমরা কাজ করব। আগে তো আমায় জানতে হবে ব্যাপারটা কী। সন্দেশখালি আজকে নতুন নয়, ওখানে আরএসএস-এর একটা বাসা আছে।”

বিধানসভায় মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ”জীবনে কোনও অন্যায়কে কোনওদিন প্রশ্রয় দিইনি। আমি উদ্যোগ নিয়ে রাজ্য কমিশন পাঠিয়েছি, প্রশাসনকে পাঠিয়েছি, ১৭ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং আপনারা দেখেছেন যারা মুখে মাস্ক পরে ছবি তুলছে, ধরাও পড়েছে, বিজেপির কর্মী, কী ভাবে তারা বাইরে থেকে নিয়ে এসে একটা এলাকাকে অশান্ত করার চেষ্টা করেছে।”

সন্দেশখালি নিয়ে কড়া পদক্ষেপ নিচ্ছে রাজ্য প্রশাসন। এলাকার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে সক্রিয় পুলিশ প্রশাসন, তেমনই রাজ্য মহিলা কমিশনও সেখানে গিয়ে মহিলাদের অভিযোগ খতিয়ে দেখেছে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী।

বার্তা সূত্র