Skip to content

‘শিশুদের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ আচরণ করুন’, অভিভাবকদের প্রতি শেখ হাসিনা

‘শিশুদের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ আচরণ করুন’, অভিভাবকদের প্রতি শেখ হাসিনা

শিশুদের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ আচরণ করতে, অভিভাবকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, মাদক ও দুর্নীতির মতো অভিশাপ থেকে শিশুদের দূরে রাখতে এমন আচরণ জরুরি বলে উল্লেখ করেন তিনি।

রবিবার (১৭ মার্চ) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০৪তম জন্মবার্ষিকী এবং জাতীয় শিশু দিবস উদযাপন উপলক্ষে, গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন শেখ হাসিনা।

“পিতা-মাতার সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক থাকতে হবে। এতে তারা (শিশুরা) বিপথগামী হতে পারবে না। সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, মাদক ও দুর্নীতি থেকে দূরে রাখতে তাদের ছোটবেলা থেকেই সততার শিক্ষা দিতে হবে;” শেখ হাসিনা যোগ করেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ক্লাসে পাঠদানের পাশাপাশি শিশুদের খেলাধুলা, চিত্রাঙ্কন, সংগীত ও অন্যান্য সাংস্কৃতিক চর্চায় নিয়োজিত করতে হবে। তাদের ধর্মীয় শিক্ষার মতো পাঠ্যক্রম বহির্ভূত কাজে নিয়োজিত করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, “আমি অভিভাবক ও শিক্ষকদের অনুরোধ জানাবো, আপনারা খেয়াল রাখবেন যাতে শিশুরা একদিকে মানবিক মূল্যবোধে উদ্বুদ্ধ হয়, অন্যদিকে তারা তাদের সুপ্ত প্রতিভা বিকাশের সুযোগ পায়।”

শিক্ষা অত্যন্ত প্রয়োজনীয় উল্লেখ করেন শেখ হাসিনা। তিনি শিক্ষার নামে শিশুদের ওপর কোনো ধরনের অন্যায্য চাপ সৃষ্টি না করতে অভিভাবক ও শিক্ষকদের প্রতি আহবান জানান।

“খেলাধুলার মাধ্যমে শিশুদের শিক্ষা নিতে হবে, যাতে তাদের সুপ্ত প্রতিভা বিকাশের সুযোগ সৃষ্টি হয়। আমরা সে অনুযায়ী কারিকুলাম প্রণয়নে এগিয়ে যেতে চাই;” শেখ হাসিনা আরো বলেন।

তিনি বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশে শিশুরা এখন ডিজিটাল ডিভাইসের মাধ্যমে বিশ্বকে দেখতে পারছে। তাই তারা শুধু পাঠ্যবই পড়ে নয়, চোখ দিয়ে দেখে শিখতে পারে। আর তখন তারাই হবে স্মার্ট বাংলাদেশের স্মার্ট সিটিজেন। “আমরা এটাই চাই;” বলেন শেখ হাসিনা।

শিশু পিয়াশা জামিল অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করে। অনুষ্ঠানটি যৌথভাবে সঞ্চালনা করে দুই শিশু আব্দুর রহমান ও লামিয়াতুল বারী।

সূত্র: ভয়েজ অব আমেরিকা