Skip to content

রয়েছে বিশেষ উপহার, হাতে আঁকা ছবি নিয়ে ভিড়ের মাঝেই প্রধানমন্ত্রী মোদীর নজর কাড়ল কিশোরী

বাংলাহান্ট ডেস্ক : রাস্তার যেদিকেই চোখ যায় শুধুই মানুষ। তাদের মধ্যে উত্তেজনা চরমে। কারণ স্বয়ং দেশের প্রধানমন্ত্রী আসছেন। শুধু তাই নয়, আধুনিক গুজরাটের রূপকারও তাকে বলা হয়। গুজরাটের ভাপি শহরের মানুষজন রাজপথে নেমে এসেছিলেন নরেন্দ্র মোদিকে সামনে থেকে একবার দেখার জন্য। সেই জন অরণ্যেই ছিল এক ১৩ বছরের কিশোরী। তার হাতে নরেন্দ্র মোদির একটি পোট্রেট। শেষ পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রীর হাতে পৌঁছেও গেল সেই ছবি। এভাবে হাজার হাজার মানুষের মধ্যে ১৩ বছরের এক কিশোরী সবাইকে অবাক করে দিয়ে উঠে এলেন লাইম লাইটে।

গুজরাটে আর কিছুদিন পর নির্বাচন। এমন অবস্থায় প্রত্যেকটি রাজনৈতিক দল জোর কদমে প্রচারে নেমে গেছে। গত ছটি বিধানসভায় একটানা বিজেপি জয়লাভ করেছেন গুজরাটে। এই নির্বাচনেও তাদের দিকে পাল্লা ভারী। কিন্তু তা সত্ত্বেও বিজেপি প্রচারে কোন খামতি রাখতে চাইছে না। বিজেপির হয়ে প্রচার করতে গুজরাটে যাতায়াত করছেন নরেন্দ্র মোদী, অমিত শাহের মতো নেতারা। তাদের রোড শোতে ভিড় জমাচ্ছেন কাতারে কাতারে মানুষ।

সেই ভিড়ের মধ্যেই ১৩ বছরের মেয়েটি দাঁড়িয়ে ছিল। মেয়েটির নাম আমি ভাতু। প্রধানমন্ত্রীর ছবি পোট্রেট হিসেবে এঁকে নিয়ে এই রোড শোয়ে এসেছিল সে। চার ঘন্টা অপেক্ষা করার পর তার সাথে দেখা হয় প্রধানমন্ত্রীর। সে হাত নাড়িয়ে প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তারক্ষীদের দৃষ্টি আকর্ষণ করার চেষ্টা করছিল। কিন্তু নরেন্দ্র মোদি নিজেই সেই মেয়েটিকে দেখতে পান।

এরপর তিনি নিরাপত্তারক্ষীদের বলেন যে কিশোরীর কাছ থেকে ছবিটি নিয়ে আসার জন্য। এরপর নিরাপত্তা রক্ষীরা সেই ছবিটি কিশোরীর হাত থেকে নিয়ে পৌঁছে দেন মোদির হাতে। এই ঘটনার পর আমি জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী নিজেই আমাকে দেখতে পেয়েছেন। আমি আপ্লুত। মোদিজি এই ছবিটি নিজে থেকে নেওয়ায় আমি খুবই সম্মানিত বোধ করছি।

বার্তা সূত্র