Skip to content

‘রূপান্তর’ নাটক নিয়ে মুখ খুললেন জোভান

ফারহান আহমেদ জোভান

ফারহান আহমেদ জোভান

প্রতিবছরই ঈদের নাটকে নজর কাড়েন অভিনেতা ফারহান আহমেদ জোভান। তবে এবার ঈদে তার অভিনীত নাটক ‘রূপান্তর’র কারণে নেটিজেনদের তোপের মুখে পড়েছেন তিনি। শুধু তাই নয়, তাকে নিয়ে বয়কটের ডাক দেওয়া হয়েছে সামাজিকমাধ্যমে।

‘রূপান্তর’ নাটকটি নিয়ে রীতিমতো সমালোচনার ঝড় উঠেছে নেটদুনিয়ায়। ফলে বাধ্য হয়ে ইউটিউব থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে নাটকটি। এবার বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলেছেন জোভান। পাশাপাশি অভিনেতা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, আগামীতে আর কখনও এ ধরনের নাটকে কাজ করবেন না তিনি।

সম্প্রতি দেশের একটি গণমাধ্যমে বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছেন জোভান। তিনি বলেছেন, আমি বুঝতে পারছি না, নাটকটি নিয়ে কেন এত সমালোচনা! নাটকটির ভিউ নব্বই হাজার হয়েছিল। কিন্তু বাকি মানুষ তো দেখেনি। আমার কাছে মনে হয় তারা নাটকটি না দেখেই সমালোচনা করছে। এ নিয়ে ঘোরের মধ্যে আছি আমি। বুঝতে পারছি না, ঠিক কী হচ্ছে।

নাটকটির কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয়ের জন্য জোভানের বিরুদ্ধে বয়কটের ডাক দেওয়ার বিষয়টিকে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলেই মনে করছেন এই অভিনেতা। জোভানের ভাষ্য, হতে পারে এটা উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। কেননা সামগ্রিকভাবে কথা বলার থেকে ব্যক্তিগত আক্রমণই বেশি করা হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, দর্শক যেহেতু পছন্দ করছে না, তাহলে এমন চরিত্রে আর কাজ করা যাবে না। এরপর থেকে এসব করব না আর। একইসঙ্গে নেটিজেনদের উদ্দেশে জোভান বলেন, ভেবেছি এটা নিয়ে একটি বিবৃতি দেব। সেখানে আমার সব কথা জানাব।

‘রূপান্তর’ নাটকটি নির্মাণ করেছেন রাফাত মজুমদার রিংকু। এতে নাম ভূমিকায় অভিনয় করেন জোভান। মূলত ট্রান্সজেন্ডার বিষয়টিকে কেন্দ্র করে নির্মিত হয়েছে নাটকটি।

নাটকটি মুক্তি পাওয়ার পর থেকেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে চলছে জোর চর্চা। নেটদুনিয়ায় বলা হচ্ছে— ট্রান্সজেন্ডার ইস্যু নিয়ে নাটকটি বানানো হয়েছে। আরেকটি পক্ষ বলছে, ট্রান্সজেন্ডার ইস্যুকে কেন্দ্র করে ভালোভাবে না জেনেই মনগড়া কথা বলছেন নির্মাতা।

অন্য একটি পক্ষের দাবি, ট্রান্সজেন্ডার কনসেপ্টকে প্রচারণা করা হচ্ছে। তবে নাটকের বিষয়বস্তু নিয়ে অভিযোগ যাচাই করার আগেই ইউটিউব থেকে সরিয়ে নেওয়া হলো নাটকটি।

প্রসঙ্গত, গত ১৫ এপ্রিল সন্ধ্যা ৭টায় ইউটিউবে প্রকাশ করা হয় জোভান অভিনীত নাটক ‘রূপান্তর’। এতে হরমোনজনিত কারণে একজন মানুষের একা হয়ে যাওয়ার গল্পকে তুলে ধরা হয়েছে।



বার্তা সূত্র