Skip to content

রাহুল গান্ধীর সঙ্গে ‘ভারত জোড়ো যাত্রা’য় হাঁটা অপরাধ! সাসপেন্ড মধ্যপ্রদেশের স্কুল শিক্ষক

Published by: Kishore Ghosh |    Posted: December 4, 2022 4:44 pm|    Updated: December 4, 2022 4:44 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কংগ্রেসের (Congress) ‘ভারত জোড়ো যাত্রা’য় (Bharat Jodo Jatra) যোগ দিয়েছেন। রাহুল (Rahul Gandhi) ও প্রিয়াঙ্কার গান্ধীর (Priyanka Gandhi) সঙ্গে হেঁটেছেন। এই ‘অপরাধে’ সাসপেন্ড হলেন মধ্যপ্রদেশের (Madhya Pradesh) সরকারি স্কুলের জনৈক শিক্ষক। কর্তৃপক্ষের দাবি, সরকারি স্কুলের শিক্ষক হয়ে একটি রাজনৈতিক কর্মসূচিতে যোগ দেওয়ায় সাসপেন্ড করা হয়েছে ওই ব্যক্তিকে। যদিও কংগ্রেসের অভিযোগ, শাসক দল বিজেপি (BJP) ভয় পেয়ে এই কাজ করছে।

বারওয়ানি জেলার কুনজারির প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষক রাজেশ কান্নাউজে। গত ২৪ নভেম্বর তিনি কংগ্রেসের ভারত জোড়ো যাত্রায় অংশ নেন। ওই দিন মধ্যপ্রদেশের ধার জেলার মরগাঁওয়ে পদযাত্র করেন রাহুল ও প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। দুই শীর্ষ নেতার সঙ্গে হাঁটেন রাজেশ। এর মধ্যে কোনও দোষ দেখছে না ওই শিক্ষক। যদিও রাজেশকে সাসপেন্ড করেছেন আদিবাসী দপ্তরের সহকারী কমিশনার নীলেশ রঘুবংশি। তাঁর দাবি, রাজনৈতিক পদযাত্রায় যোগ দিয়ে রাজ্যের সরকারি কর্মীদের নির্দিষ্ট আচরণবিধি ভেঙেছেন রাজেশ কান্নাউজে।

[আরও পড়ুন: সরাববন্দি মঞ্জুর নয়! তাড়ি বিক্রির দাবিতে জনসভায় রোষের মুখে নীতীশ]

এদিকে খোদ রাজেশ কান্নাউজে জানিয়েছেন, পদযাত্রায় রাহুল গান্ধীর কাছে আদিবাসীদের সমস্যা তুলে ধরার চেষ্টা করছিলেন তিনি। সঙ্গে ছিলেন আদিবাসী মুক্তি সংগঠন নেতা গজানন্দ ব্রহ্মণ। সাসপেন্ড হওয়ার পরেও তিনি জানিয়ে দেন, আদিবাসীদের অধিকার সংকটের মুখে। আদিবাসীদের নিয়ে রাহুল গান্ধী প্রশ্ন করায় সমস্যার কথা তুলে ধরেন তিনি। “তাঁকে তির এবং ধনুক উপহার দিয়েছি আমরা।” এদিকে ভারত জোড়ো যাত্রায় অংশ নেওয়ায় সরকারি স্কুলের শিক্ষক সাসপেন্ড হওয়ায় শাসক দল বিজেপিকে তোপ দেগেছে বিরোধী কংগ্রেস।

[আরও পড়ুন: ভারতের জমি দখল করছে চিন, আর মোদি জিনপিংয়ের সঙ্গে হাত মেলাচ্ছেন! তোপ কংগ্রেসের]

কংগ্রেস নেতা তথা রাজ্যের প্রাক্তন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বালা বচ্চন (Bala Bachchan) কটাক্ষ করেন, মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান (Shivraj Singh Chouhan) ভয় পেয়েছেন। তিনি বলেন, “বিজেপির বহু অনুষ্ঠানে সরকারি কর্মচারীরা যোগ দিয়ে থাকেন। তাঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয় না।” যদিও এই বিষয়ে এখনও পর্যন্ত মুখ খোলেনি মধ্যপ্রদেশের বিজেপি শিবির।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ

নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে



বার্তা সূত্র