Skip to content

রাজ্যে মুসলিম উপমুখ্যমন্ত্রীর দাবি জানালেন কংগ্রেস নেতা কৌস্তভ বাগচী

সদ্য ইমাম, মুয়াজ্জিন ও পুরোহিতদের মাসিক ভাতা ৫০০ টাকা করে বাড়ানোর কথা ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর সেই ঘোষণা ঘিরে বিতর্কের মাঝেই আজব দাবি তুললেন রাজ্যের কংগ্রেস(Congress) নেতা কৌস্তভ বাগচী। ফেসবুক পোস্টে দাবি করলেন যে রাজ্যে একজন মুসলিমকে উপমুখ্যমন্ত্রী করতে হবে।

নাম না করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে উদ্দেশ্য করে ফেসবুক পোস্টে কৌস্তভ বাগচী লিখেছেন, “রাজ্যের মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষজনকে মুখে মুখে ভালোবাসার কথা বলে লাভ নেই মাননীয়া। অবিলম্বে রাজ্য মন্ত্রী সভায় একজন উপ মুখ্যমন্ত্রীকে শপথ নিতে দেখতে চায় এই রাজ্যের মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ।”

উল্লেখ্য, কংগ্রেস নেতা কৌস্তভ বাগচী বরাবরই তৃণমূলের চরম বিরোধী হিসেবেই পরিচিত। বারবার তিনি তৃণমূলের কড়া সমালোচনা করেছেন। এমনকি সমালোচনা করে জেলও খেটেছেন। তৃণমূলের সম্প্রদায়িক রাজনীতির বারবার সমালোচনা করেছেন কড়া ভাষায়। কিন্তু জাতীয় স্তরে “আই এন ডি আই এ” জোটে এক টেবিলে রয়েছে কংগ্রেস ও তৃণমূল কংগ্রেস। আর তারপর থেকেই দলে গুরুত্ব হারিয়েছেন কৌস্তভ বাগচী।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন যে জাতীয় স্তরে এখন তৃণমূল ও কংগ্রেস জোটবদ্ধ হওয়ার কারণে দিশেহারা অবস্থা পশ্চিমবঙ্গের কংগ্রেস নেতাদের। এমন সময় তৃণমূল কংগ্রেসের ভারসাম্যের রাজনীতির কারণে সমালোচনার পথ খুঁজে পাচ্ছে না রাজ্য কংগ্রেস। তাই পুরনো সাম্প্রদায়িক মুসলিম প্রীতিকে হাতিয়ার করেছেন কৌস্তভ বাগচী। হঠাৎ করে মুসলিম উপ মুখ্যমন্ত্রীর দাবি জানিয়ে প্রচারে টিকে থাকার চেষ্টা করছেন তিনি।

তবে কৌস্তভের এমন দাবির প্রেক্ষিতে রাজ্য কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্বের তরফে কোনও প্রতিক্রিয়া এখনও পর্যন্ত আসেনি। ফলে কৌস্তভের এমন সাম্প্রদায়িক দাবি কংগ্রেস নেতৃত্ব কী চোখে দেখে, এখন সেটাই দেখার বিষয়।

(ছবি: কৌস্তভ বাগচীর অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ থেকে নেওয়া)

Views: 236

বার্তা সূত্র