Skip to content

মুসলিম পরিচালিত দোকানে যেতে হিন্দু-খ্রিস্টানদের বারণ কংগ্রেস নেতার? জানুন ভাইরাল ভিডিয়োর সত্য়তা

সম্প্রতি কেরালার রাজনৈতিক নেতা পিসি জর্জের ২০২২ সালের একটি ভিডিয়ো ভাইরাল হয়েছে সোশ্য়াল মিডিয়ায়। ভিডিয়োটিতে নেতাকে মুসলিম সম্প্রদায়কে লক্ষ্য করে ধর্মীয় উস্কানি মূলক মন্তব্য করতে শোনা যয়া নেতাকে। বর্তমানে ওই ভিডিয়োটি ভাইরাল হয়েছে সোশ্য়াল মিডিয়ায়। যে ব্যবহারকারী ভিডিয়োটি শেয়ার করেছেন তিনি দাবি করেছেন কেরালা কংগ্রেসের সদস্য় পিসি জর্জ মুসলিম পরিচালিত রেস্তোরাঁয় যেতে বারণ করেছেন হিন্দু ও খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের মানুষদের। পিসি জর্জ শ্রীলঙ্কার উদাহরণ তুলে ধরে দাবি করেন যে মুসলিমরা অমুসলিম জনগোষ্ঠীকে বন্ধ্যা করে ভারত দখল করার চেষ্টা করছে।

ভিডিয়োটিতে পিসি জর্জকে মালায়লম ভাষায় মন্তব্য করতে শোনা যায়, ‘মালাপ্পুরামে ওরা কেন মল নির্মাণ করছে না? আমি ওদের জিজ্ঞাসা করেছিলাম কেন ওরা কোঝিকরে মল তৈরি করেছে না। কারণ ওরা মুসলিমদের থেকে টাকা নিতে চায় না। ওরা আপনার টাকা নিতে চায়। আপনার ছেলে-মেয়েরা কি মলে যায় না? উনি আপনার টাকা নেন না? আপনাদের উচিত এইরকম সংস্থায় এক টাকাও ব্যয় না করা। আমি সম্প্রতি একজন মুসলিম দ্বারা পরিচালিত একটি খাবারের দোকানে প্রায় ১৫০ জন লোককে ঢুকতে দেখি। অথছ একজন নায়ার পরিচালিত দোকান খালি ছিল। বিষয়টা আসলে আমাদের ভুল। আপনারা যদি সচেতন না হন তাহলে পরে পস্তাবেন। আপনার চায়ে ওষুধ মেশানো হচ্ছে। এই ওষুধের এক ফোঁটা আপনাকে বন্ধ্যা কর দেবে। নারী-পুরুষকে বন্ধ্যা করে দেওয়ার চেষ্টা চলছে। এভাবে তারা ভারতকে দখল করতে চায়। কিন্তু আপনারা এই বিষয়ে মনোযোগ দেন না এবং এর ফলে আমরা সকলেই ক্ষতির মুখোমুখি হচ্ছি। আমি অত্যন্ত দায়িত্ব নিয়ে বলছি। আপনার নিজের কল্যাণের জন্য, আপনাকে অবশ্যই কাজ করতে হবে।’

যদিও সোশ্য়াল মিডিয়া ব্য়বহারকারী দাবি করেছেন, জর্জ শ্রীলঙ্কার একটি ঘটনার কথা বলেছেন যেখানে একজন চিকিৎসকে বহু অমুসলিম রোগীকে বন্ধ্যা করে দেওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে। ক্লিপটিতে জর্জ শ্রীলঙ্কার কথা উল্লেখ করেননি যদিও। পোস্টটিতে একাধিক ব্য়বহারকারী দুষেছেন কংগ্রেসকে। পিসি জর্জকে কংগ্রেস নেতা ভেবে তাঁরা হাত শিবিরকে আক্রমণ করেছেন। যদিও পিসি জর্জ জাতীয় কংগ্রেসের সদস্য় কিংবা কেরালা কংগ্রেসে সদস্য নন। বরং তিনি বর্তমানে বিজেপির নেতা। উপরন্তু, তিনি এই ভাষণ দেওয়ার সময় কংগ্রেস বা কেরালা কংগ্রেসের সাথে যুক্ত ছিলেন না।

দেখুন নেটিজেনদের কমেন্ট

ফ্য়াক্ট চেক

ফ্য়াক্ট চেক
পিসি জর্জের বক্তৃতার প্রেক্ষাপট বোঝার জন্য,ব্যাকগ্রাউন্ডে দেখা ব্যানারের উপর ভিত্তি করে অনুসন্ধান চালিয়ে দেখা যায়, সেখানে মালায়লম ভাষায় লেখা রয়েছে ‘হিন্দু মহা সম্মেলন ২০২২’। ইন্ডিয়া ট্রেন্ডস লাইভ নামে একটি ইউটিউব চ্যানেলে পিসি জর্জের দেওয়া সম্পূর্ণ বক্তৃতা খুঁজে পাওয়া গিয়েছে। ভিডিওর বর্ণনা অনুসারে, এই ইভেন্টটি তিরুবনন্তপুরমে ৩০ এপ্রিল, ২০২২ সালে অনুষ্ঠিত হয়েছিল। অনন্তপুরী হিন্দু মহা সম্মেলন নামে পরিচিত এই অনুষ্ঠানটি ২৭ এপ্রিল, ২০২২ এবং ১ মে, ২০২২ সালের মধ্যে অনুষ্ঠিত হয়েছিল৷ পিসি জর্জ ৩০ এপ্রিল এই ভাষণটি দিয়েছিলেন . অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিজেপি নেতা সন্দীপ বাচস্পতি ও হিন্দুত্ববাদী কর্মী অ্যাড. কৃষ্ণরাজকেও দেখা যায় মঞ্চে। ভিডিয়োটিতে পিসি জর্জকে লাভ জিহাদের মতো ডানপন্থী বর্ণনাকে সমর্থন করতে এবং মুসলিম সম্প্রদায়কে অর্থনৈতিক বয়কটের আহ্বান জানাতে শোনা যায়। পিসি জর্জ তার বক্তব্যে লুলু মলের মালিক এম এ ইউসুফ আলীকেও আক্রমণ করেন।

পিসি জর্জ যখন তাঁর বক্তৃতা করেছিলেন তখন তিনি কংগ্রেস বা কেরালা কংগ্রেসের সদস্য ছিলেন না। তিনি তার নিজের দল, কেরালা জনপক্ষম (ধর্মনিরপেক্ষ) এর সদস্য ছিলেন। ২০১৯ সালে বিজেপি নেতৃত্বাধীন জাতীয় গণতান্ত্রিক জোটে (এনডিএ) যোগদানের পরে প্রতিষ্ঠা করেছিলেন এই দল।

ফ্যাক্ট চেক

পিসি জর্জ ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনেও এনডিএ-র সমর্থন নিয়ে পুঞ্জর থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে হেরে যান। অনন্তপুরী হিন্দু মহাসম্মেলনে বক্তৃতা দেওয়ার পর বিদ্বেষপূর্ণ বক্তব্যের জন্য পিসি জর্জকে কেরালা পুলিশ গ্রেফতার করেছিল। ২০২৪ সালের ৩১ জানুয়ারি নিজের দলকে বিজপির সঙ্গে মিলিয়েন পিসি জর্জ। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেনকেন্দ্রীয় মন্ত্রী ভি. মুরালীধরন, রাজীব চন্দ্রশেখরণ এবং প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর।

ফ্য়াক্ট চেক

আগেও একাধিকবার বিতর্কিত মন্তব্য করে সংবাদের শিরোনামে এসেছেন পিসি জর্জ। বিদ্বেষমূলক বক্তব্যের অভিযোগসহ বিভিন্ন বিতর্কিত ইস্যুতে জড়িয়েছেন। উপরন্তু ২০২২ সালে তাঁকে যৌন নিপীড়নের মামলায় গ্রেফতার করা হয়েছিল।

সিদ্ধান্ত
অনুসন্ধান থেকে এটাই স্পষ্ট যে ভাইরাল ভিডিয়োতে দেখা সাম্প্রদায়িক ভাষণটি পিসি জর্জ দিয়েছিলেন ২০২২ সালে। সেই সময় তাঁর নিজের দল, কেরালা জনপক্ষের (ধর্মনিরপেক্ষ) সদস্য এবং বিজেপির সহযোগী ছিলেন। এই বক্তৃতার সময় পিসি জর্জ ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস বা কেরালা কংগ্রেসের কোনও দলের সদস্য ছিলেন না। চলতি বছরের জানুয়ারিতে তিনি তাঁর সঙ্গে বিজেপির সঙ্গে মিলিয়ে দেন। এক্ষেত্রে প্রমাণিত ভাইরাল ভিডিয়োটি বিভ্রান্তিকর দাবিতে পোস্ট করা হয়েছে সোশ্য়াল মিডিয়ায়।

(This article was originally published by Fact Crescendo and later edited and translated by Ei Samay Digital)



বার্তা সূত্র