মুখ্যমন্ত্রীর থেকে পুজোর উপহার পেয়ে আপ্লুত দেবাংশু

মুখ্যমন্ত্রীর থেকে পুজোর উপহার পেয়ে আপ্লুত দেবাংশু

হাইলাইটস

  • চলছে পুজো প্রস্তুতি।
  • এবার পুজোর আগেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের থেকে বিশেষ উপহার পেলেন যুব তৃণমূল নেতা দেবাংশু ভট্টাচার্য।
  • আর এই কথা ফেসবুকে পোস্ট করে নিজেই জানিয়েছেন তিনি।

এই সময় ডিজিটাল ডেস্ক: ঢাকে কাঠি পড়তে বাকি আর হাতে গোনা মাত্র কয়েকদিন। করোনার জেরে আড়ম্বর কমেছে। কিন্তু, আবেগে ভাটা পড়েনি।

পুজোর আগেই ভোটের লড়াই। ভবানীপুর উপনির্বাচনের প্রচারে চরম ব্যস্ত দলনেত্রী। একা হাতে সামলাচ্ছেন সবদিক। কিন্তু, এই চরম ব্যস্ততার মধ্যে ‘পরিবার’এর মানুষগুলোর মুখে হাসি ফোটাতে ভোলেননি তিনি। দেবাংশু ভট্টাচার্যকে একটি পাঞ্জাবি উপহার উপহার দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।
দেবাংশু একটি ফেসবুক পোস্টে লেখেন, ‘দিদির তরফে পুজোর উপহার। পুজোর প্রথম পোশাকটা নিজের আদর্শের কাছ থেকে পাওয়ার আনন্দ বিশ্লেষণ করার ক্ষমতা আমার নেই। এক মায়ের থেকে একটা জামা হয়ে গেল! ঠিক ছোটবেলার মত আনন্দ হচ্ছে।’ উপহার পেয়ে যে অত্যন্ত খুশি, তা স্পষ্ট বুঝিয়ে দিয়েছেন দেবাংশু। মুখ্যমন্ত্রীর দেওয়া উপহারের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্টও করেছেন তিনি। যেখানে দেখা যাচ্ছে একটি নীল সাদা পাঞ্জাবি।

যোগীর উন্নয়ন চিত্রে মমতার মা উড়ালপুল, তুলোধনা দেবাংশুর
এই পোস্টে কমেন্ট করে অনেকে এই উপহারের প্রশংসাও করেছেন। প্রসঙ্গত, উপনির্বাচনের প্রচারে এই মুহূর্তে তুমুল ব্যস্ত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ৩০ তারিখ ভবানীপুরে লড়াই। রেকর্ড ভোটে জয়ী হওয়ার লক্ষ্য নিয়েই ভোট ময়দানে নামছেন তিনি, তা আগেই জানানো হয়েছিল দলের তরফে। কিন্তু, এই ব্যস্ততার মধ্যেও পুজোর প্রস্তুতিতে কোনও খামতি রাখতে নারাজ এই পোস্টেই তা স্পষ্ট। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বরাবরই জানিয়ে এসেছেন দলের প্রত্যেক নেতা-কর্মী তাঁর পরিবার। এবার পরিবারের সদস্যকে পুজোর উপহার তুলে দিলেন তিনি।

‘গ্যালাক্সির সবথেকে বড় জননেতা শুভেন্দু ভবানীপুরে আসুন’, তীব্র কটাক্ষ দেবাংশুর
এদিকে ভবানীপুর উপনির্বাচনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য শুভেন্দু অধিকারীকে আহ্বান জানিয়েছিলেন দেবাংশু ভট্টাচার্য। তিনি একটি ফেসবুক লাইভে তীব্র কটাক্ষের সুরে বলেছিলেন, ‘পৃথিবীর সবথেকে বড় জননেতা, যাঁকে রাশিয়ার পুতিন থেকে শুরু করে চিন সংগঠন সাজাতে ডাক পাঠান, এমনকী পৃথিবীর বাইরে মঙ্গল গ্রহেও যাঁর প্রভাব আমরা দেখতে পাই, সেই শুভেন্দু অধিকারীকে আমরা ভবানীপুরে প্রার্থী হিসেবে দেখতে চাই।’ এখানেই শেষ নয়, দেবাংশু আরও বলেন, ‘গায়ে বরফ মেখে বুধেও সংগঠন বিস্তার করার লক্ষ্যে যান শুভেন্দু অধিকারী। যাঁর এত সাংগঠিক ক্ষমতা, নন্দীগ্রামের সেই ডিসপিউটেড বিধায়কে ভবানীপুরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য আহ্বান জানাচ্ছি। সকলের উদ্দেশে বলছি আপনাও এই বার্তা দিন যে ভবানীপুরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে শুভেন্দুকেই চাই।’ বিরোধী দলনেতাকে কার্যত চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেন এই যুব তৃণমূল নেতা।

সংবাদ সূত্র

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on email

সর্বাধিক পঠিত

সর্বশেষ সংবাদ