মার্কিন দূতাবাসে হামলা: ইরানকে সতর্ক করলেন ট্রাম্প

মার্কিন দূতাবাসে হামলা: ইরানকে সতর্ক করলেন ট্রাম্প   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ইরাকের রাজধানী বাগদাদে অবস্থিত মার্কিন দূতাবাসের কাছে অন্তত ৮টি রক্ষেট নিক্ষেপের ঘটনায় ইরানকে দায়ী করেছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এছাড়া এমন হামলায় কোনো মার্কিন নাগরিক নিহত হলে ইরানে পাল্টা হামলা চালানো হবে বলেও হুমকি দিয়েছেন ট্রাম্প। বুধবার একটি টুইট বার্তায় ট্রাম্প এই হুমকি দেন।

গত রবিবার ইরাকের মার্কিন দূতাবাসের কাছে ৮টি রক্ষেট নিক্ষেপ করা হয়। এতে ইরাকের নিরাপত্তা বাহিনীর এক সদস্য আহত হন।

এ প্রসঙ্গে টুইট বার্তায় ট্রাম্প বলেন, রবিবার আমাদের দূতাবাসকে লক্ষ্য করে একাধিক রকেট হামলা চালানো হয়েছে। ধারণা করুন এগুলো কোথা থেকে এসেছে: ইরান।

ঐ টুইট বার্তায় ইরানকে সতর্ক করে ট্রাম্প বলেন, যদি একজন মার্কিন নাগরিক নিহত হন। আমি এর জন্য ইরানকে দায়ী করবো। এটি নিয়ে ভাবুন।

ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসির কুদস ফোর্সের প্রধান লে. জেনারেল কাসেম সোলাইমানি মৃত্যুবার্ষিকীর আগে এই হামলা হোয়াইট হাউজে শঙ্কা তৈরি করেছে। গত ৩ জানুয়ারি ইরাকের রাজধানী বাগদাদের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে জেনারেল সোলাইমানিকে বহনকারী গাড়ির ওপর ড্রোন হামলা চালিয়ে হত্যা করে মার্কিন সেনারা।

হামলায় ইরাকের স্বেচ্ছাসেবী বাহিনী হাশদ আশ-শাবির উপ প্রধান আবু মাহদি আল-মুহান্দিসসহ দুই দেশের আরও ৮ কমান্ডার নিহত হন। এই হত্যাকাণ্ড বিশ্বব্যাপী তোলপাড় সৃষ্টি করে। নিন্দার ঝড় উঠে সর্বত্র। সম্প্রতি ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনি বলেছেন, ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসির কুদস ফোর্সের প্রধান লে. জেনারেল কাসেম সোলাইমানি হত্যার প্রতিশোধ অবশ্যই নেয়া হবে। হত্যার নির্দেশদাতা এবং এর সঙ্গে জড়িতদেরও বিচার করা হবে।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।