Skip to content

‘ভুলে ভরা সিলেবাস সংশোধন নয়, বাতিল করতে হবে’

‘ভুলে ভরা সিলেবাস সংশোধন নয়, বাতিল করতে হবে’

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: শিক্ষা সিলেবাস ২০২৩-এর যেসব অংশ ‘ভুলে ভরা’ এবং ‘বিতর্কিত’, সেগুলো সংশোধন নয়, সম্পূর্ণ বাতিল করার দাবি জানিয়েছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ’র আমির মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম।

রোববার (২৯ ডিসেম্বর) দুপুরে পুরানা পল্টনে দলটির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলন থেকে তিনি এ দাবি জানান।

মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম বলেন, ‘২০২৩ সালের মাধ্যমিক স্তরের পাঠ্যপুস্তকে জনগণের বোধ-বিশ্বাস সংস্কৃতি ও জাতীয় স্বার্থকে উপেক্ষা করে সাম্প্রদায়িক উসকানি, তথ্য ও ইতিহাস বিকৃতি, বিতর্কিত ও অবৈজ্ঞানিক মানব সৃষ্টিতত্ত্ব অনু্প্রবেশ, ট্রান্সজেন্ডার, পৌত্তলিক ও ব্রাহ্মণ্যবাদী সংস্কৃতির আধিপত্য, ইসলামকে ভিনদেশি সাব্যস্ত করা এবং প্লেজারিজমের মতো নিন্দনীয় বিষয় অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।’

‘সুতরাং ইসলামী আন্দোলন মনে করে— এই বই সংশোধন না, বরং বাতিল করতে হবে এবং সত্যনিষ্ঠ শিক্ষাবিদ ও উলামাদের সমন্বয়ে নতুন করে বই লিখতে হবে। একইসঙ্গে এই বই রচনার সঙ্গে জড়িতদের ভিন্ন কোনো রাজনৈতিক দুরভিসন্ধি আছে কি না, তা খুঁজে বের করতে হবে এবং দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে’- বলেন মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম।

সুইডেন ও ডেনমার্কে কোরআন অবমাননা প্রসঙ্গ:

মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম বলেন, ‘ইসলামের সঙ্গে পশ্চিমাদের আচরণে দিবালোকের মতো প্রমাণ হয়েছে যে, তারা মধ্যযুগীয় সংকীর্ণতা থেকে বের হতে পারে নাই। সম্প্রতি সুইডেন ও ডেনমার্কে যেভাবে ঘোষণা দিয়ে পবিত্র কোরআনে অগ্নিসংযোগ করে বিশ্বের কোটি কোটি মানুষের বিশ্বাস ও শ্রদ্ধার প্রতি আঘাত করা হয়েছে, তা অকল্পনীয়। কোনো সভ্য সমাজে এ ধরনের আচরণ চিন্তাও করা যায় না।’

বাংলাদেশে নিযুক্ত সুইডেন ও ডেনমার্কের রাষ্ট্রদূতকে তলব করে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে জোরালো প্রতিবাদ জানানোর জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান ইসলামী আন্দোলনের আমির।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মহাসচিব অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ, প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যক্ষ মাওলানা সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল মাদানী, অধ্যাপক আশরাফ আলী আকন, যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা গাজী আতাউর রহমান, মুহাম্মদ আমিনুল ইসলাম, ইঞ্জিনিয়ার আশরাফুল আলম, সহকারী মহাসচিব মাওলানা ইমতিয়াজ আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক কে এম আতিকুর রহমান, খলিলুর রহমান, প্রচার ও দাওয়াহ্ বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ুম প্রমুখ।

সারাবাংলা/এজেড/এনএস



বার্তা সূত্র

সর্বাধিক পঠিত

সর্বশেষ সংবাদ