Skip to content

বুম্বাদার ঘরে এক টুকরো ঢাকা!

সম্প্রতি হইচই ৬ বছরে পদার্পণ ভারতীয় ওটিটি প্লাটফর্ম হইচই। যে প্লাটফর্মটির বদৌলতে যেন একাকার হয়ে গেলেন ঢাকা-কলকাতার অভিনয় শিল্পী, নির্মাতা ও কলাকুশলীরা। দুই বাংলা মিলিয়ে নতুন ২৫টি কন্টেন্ট ঘোষণার পাশাপাশি সম্প্রতি এক মঞ্চে দাঁড়ালেন ঢাকা-কলকাতার পরিচিত মুখগুলো।

ইতোমধ্যে কন্টেন্টগুলো সম্পর্কে জেনেছেন দর্শক। তবে কাজের ক্ষেত্রে নতুন করে ঢাকা-কলকাতার শিল্পীদের সৌহার্দ্যপূর্ণ মিলন মেলা যেনো মন ছুঁয়েছে ভক্ত অনুরাগীদেরও।

Sarkas
বুম্বাদার ঘরে এক টুকরো ঢাকা!

বিশেষ করে কলকাতার সিনেমার সুপারস্টার অভিনেতা প্রসেনজিতের আতিথেয়তায় ঢাকার তারকাদের মুগ্ধতার মুহূর্তগুলো প্রাণ ছুঁয়েছে দুই বাংলার ভক্ত অনুরাগীদের।

জানা গেছে, সম্প্রতি হইচইয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে ঢাকা থেকে বেশ কয়েকজন তারকা শিল্পী গিয়েছিলেন কলকাতায়। এরপর প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জীর আমন্ত্রণে তার বাড়িতে গিয়েছিলেন অনেকে। এরমধ্যে চঞ্চল চৌধুরী, ইন্তেখাব দিনার, বৃন্দাবন দাশ, শাহনাজ খুশী, সৈয়দ আহমেদ শাওকী, বিজরী বরকতউল্লাহ সহ ছিলেন আরও কয়েকজন।

প্রসেনজিতের বাড়ি

বুম্বাদার বাড়িতে ডিনারের আমন্ত্রণের অভিজ্ঞতা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভক্তদের সঙ্গে ভাগ করেছেন অভিনেত্রী বিজরী বরকতউল্লাহ। প্রসেনজিতের ঘরের বেশকিছু মুহূর্তের ছবি শেয়ার করে তিনি লিখেছেন, ‘একজন শিল্পীর বিনয় তাকে মানুষ হিসেবে অনেক উঁচুতে নিয়ে যায়। সেটি প্রমাণ করেছেন কলকাতার প্রথিতযশা জনপ্রিয় অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় (বুম্বাদা)।’

বিজরী লিখেন, বুম্বাদার সৌহার্দ্যপূর্ণ ব্যবহার ও বিনয়ে আমরা মুগ্ধ হলাম। তিনি রাতের খাবারের আয়োজন করেছিলেন তার বাড়িতে আমাদের জন্য মানে বাংলাদেশের কিছু শিল্পীদের জন্য। চমৎকার সময় আমরা কাটিয়েছি তার বাড়ীতে। ভীষণ পরিপাটি এবং শৈল্পিকতার ছোঁয়ায় পরিপূর্ণ এ বাড়িটির রয়েছে ঐতিহাসিক মর্যাদা। দারুণ একটি সময় কাটালাম আমরা। চঞ্চল চৌধুরী তোমাকে ধন্যবাদ এই উদ্যোগটি নেয়ার জন্য।’

এদিকে প্রসেনজিতের সঙ্গে তার বাড়িতে কাটানো মুহূর্তের একটি স্থিরচিত্র নিজের ফেসবুকে পোস্ট করে চঞ্চল চৌধুরী লিখেন,“সবার সংগে ছবি তোলা শেষে আমাকে বললেন ‘চল বাবু… মনের মানুষ এ আমরা যেমন করে গানের সাথে নাচতাম, সেরকম একটা ছবি তুলি’!ইনিই বুম্বাদা…!”

BSH



বার্তা সূত্র