Skip to content

বিজেপিতে যোগ দিলেন আইএএস অফিসার, প্রার্থী হচ্ছেন লোকসভা ভোটে?

এনডিএ-তে আসন সমঝোতার ফর্মুলা তৈরি করল BJP, বিরাট চমক

আর মাত্র এক সপ্তাহের অপেক্ষা। তারপরই দেশজুড়ে শুরু হচ্ছে লোকসভা নির্বাচন (Lok Sabha Election 2024)। রাজনীতিবিদদের পাশাপাশি প্রশাসনের আধিকারিক থেকে শুরু করে পুলিশ কর্তারাও ভোটের…

আর মাত্র এক সপ্তাহের অপেক্ষা। তারপরই দেশজুড়ে শুরু হচ্ছে লোকসভা নির্বাচন (Lok Sabha Election 2024)। রাজনীতিবিদদের পাশাপাশি প্রশাসনের আধিকারিক থেকে শুরু করে পুলিশ কর্তারাও ভোটের টিকিটের মোহে পদত্যাগ করে রাজনীতিতে নাম লেখাচ্ছেন। বিজেপি, কংগ্রেস থেকে শুরু করে তৃণমূলের মত দলগুলি তাঁদের টিকিটও দিচ্ছে। এবার বিজেপিতে যোগ দিলেন এক আইএএস অফিসার। অকালি দল নেতা সিকান্দার সিং মালুকার পুত্রবধূ আইএএস অফিসার পরমপাল কৌর সিধু গেরুয়া নামাবলী গায়ে চড়ালেন।

যদিও পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী তথা আম আদমি পার্টির নেতা ভগবন্ত সিং মান বৃহস্পতিবার জানিয়ে দিয়েছেন, আইএএস পরমপালের পদত্যাগপত্র এখনও অনুমোদন করেনি রাজ্য সরকার। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হরদীপ সিং পুরী এবং বিজেপির জাতীয় সাধারণ সম্পাদক বিনোদ তাওড়ের উপস্থিতিতে দিল্লিতে দলের কেন্দ্রীয় সদর দফতরে বৃহস্পতিবার সিধু ও তাঁর স্বামী বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। ভারতীয় জনতা পার্টি প্রাথমিক সদস্যপদও গ্রহণ করেছেন তাঁরা।

সিধু পদত্যাগের পর পঞ্জাবের মুখ্যসচিব তাঁর পদত্যাগপত্র মুখ্যমন্ত্রী মানের কাছে অনুমোদনের জন্য পাঠিয়ে দিয়েছেন। পঞ্জাব স্টেট ইন্ডাস্ট্রিয়াল কর্পোরেশনের ম্যানেজিং ডিরেক্টর ছিলেন সিধু। এক্স পোস্টে মুখ্যমন্ত্রী মান লিখেছেন, আইএএস অফিসার হিসেবে পরমপাল কৌরজির পদত্যাগ পঞ্জাব সরকার গ্রহণ করেনি…আগে তো ওনার আইএএস হওয়ার জন্য খুবই তাড়া ছিল…তবে কাজ ছেড়ে চলে যাওয়ার কিছু পদ্ধতি রয়েছে। পদত্যাগের পদ্ধতি না বুঝলে আপনার সম্পূর্ণ উপার্জন ঝুঁকির মুখে পড়তে পারে।

যদিও কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হরদীপ সিং পুরী দাবি করেছেন, কৌরের পদত্যাগপত্র বুধবারই গৃহীত হয়েছে। তবে মুখ্যমন্ত্রী ভগবন্ত সিং মান অন্য কথা বলায় এ নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে। তাঁর কথায়, মুখ্যমন্ত্রীই সিদ্ধান্ত নিতে পারেন কখন এবং কীভাবে পদত্যাগপত্র গ্রহণ করা হবে। সবকিছুরই একটা সুনির্দিষ্ট নিয়মকানুন রয়েছে। একজন আধিকারিক পদত্যাগ করার সঙ্গে সঙ্গেই তা গৃহীত হয় না, কিছুটা সময় লাগে। সরকার খতিয়ে দেখে পদত্যাগের পিছনে ঠিক কী কারণ রয়েছে, তারপরই এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এদিকে সিধু বিজেপিতে যোগ দিলেও তাঁকে লোকসভা ভোটে প্রার্থী করা হবে কি না তা এখনও স্পষ্ট নয়। বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্বের তরফেও এই বিষয়ে কিছু জানানো হয়নি। প্রসঙ্গত, এবার সাত দফায় লোকসভা নির্বাচন হতে চলেছে। আগামী ১৯ এপ্রিল প্রথম দফার ভোট হওয়ার কথা। নির্বাচন প্রক্রিয়া চলবে মোট ৪৩ দিন। আগামী ৪ জুন ভোটের ফলাফল ঘোষণা করা হবে। দ্বিতীয় ধাপে ২৬ এপ্রিল, তৃতীয় ধাপে ৭ মে, চতুর্থ ধাপে ১৩ মে, পঞ্চম ধাপে ২০ মে, ষষ্ঠ ধাপে ২৫ মে এবং সপ্তম ধাপে ১ জুন ভোটগ্রহণ হবে।



বার্তা সূত্র