‘বাংলাদেশের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় সন্তুষ্ট অস্ট্রেলিয়া‌’ | খেলা

‘বাংলাদেশের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় সন্তুষ্ট অস্ট্রেলিয়া‌’ | খেলা

এ ধারা বজায় রাখতে পারলে আগামী সিরিজগুলো আয়োজনে সুবিধা হবে বলে মনে করেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন। এদিকে আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বৃষ্টির সম্ভাবনা থাকলেও মিরপুরের ড্রেনেজ ব্যবস্থা ভালো হওয়ায় বিষয়টি নিয়ে চিন্তিত নয় বিসিবি।

অনেক জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে এখন বাংলাদেশে অস্ট্রেলিয়া। কোয়ারেন্টাইনে আছে রাজধানীর একটি পাঁচ তারকা হোটেলে। নিরাপত্তা আর বায়োবাবলের কঠোরতায় আগের সব সিরিজকে ছাপিয়ে গেছে এবারের আয়োজন।

তারপরও ভয় ছিল কিছুটা। কারণ ক্রিকেট বিশ্বে নাক উঁচু বলে পরিচিত অজিদের মন ভরানো যাবে কিনা তা নিয়ে ছিল সংশয়। তবে এয়ারপোর্ট এবং হোটেলের বায়োবাবল ব্যবস্থাপনায় সন্তোষ প্রকাশ করেছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার প্রতিনিধিরা।

বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন বলেন, ‌‘এয়ারপোর্ট এবং হোটেল ব্যবস্থাপনায় তারা খুশি। তারা তাদের চাহিদা থেকে অনেক বেশি কিছু পেয়েছে। আমাদের সব পরিকল্পনা অনেক নিশ্ছিদ্র ছিল।‌’

তবে অস্ট্রেলিয়াকে দেওয়া এতসব সুবিধা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে বিস্তর। উইন্ডিজ এবং শ্রীলঙ্কা সিরিজের সময়ও বায়োবাবল ঠিক রেখেছিল বিসিবি। কিন্তু তখন ছিল না এতোটা আলোচনা। তবে কি ক্রিকেটের মোড়লদের জন্য বিশেষ সুবিধা দিতে হচ্ছে ক্রিকেট বোর্ডকে?

এ বিষয়ে নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন বলেন, ‌‘বিসিবি বায়োবাবলের কিছু স্ট্যান্ডার্ড প্রটোকল আছে। অস্ট্রেলিয়া তার চেয়ে কিছু বেশি চেয়েছে। এগুলোকে আমরা ইতিবাচকভাবে নিয়েছি। এটা নিয়ে অতিরিক্ত আলোচনার কিছু দেখছি না। ক্রিকেটারদের নিরাপত্তার জন্য তারা এসব ব্যবস্থা করতে বলেছে।‌’

এত কঠিন শর্ত পূরণ করতে গিয়ে উল্টো কিছু সুবিধাই হচ্ছে বিসিবির। অস্ট্রেলিয়া সিরিজের অভিজ্ঞতা নাকি কাজে আসবে ইংল্যান্ড আর নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে।

বায়োবাবল ছাড়াও এ সিরিজে বৃষ্টির মোকাবিলা করতে হতে পারে ক্রিকেট বোর্ডকে। আবহাওয়ার পূর্বাভাস বলছে সেরকমই। কিন্তু মিরপুরের ড্রেনেজ ব্যবস্থার ওপর পুরোপুরি আস্থা রাখছে বিসিবি।

নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন জানান, ‌’আমাদের আর কোনো উপায় ছিল না। শিডিউল পরিবর্তন সম্ভব ছিল না। আমাদের এখানকার ড্রেনেজ ব্যবস্থা খুব ভালো, আশা করি সমস্যা হবে না। টি-টোয়েন্টি মাত্র তিন ঘণ্টার ম্যাচ, চেষ্টা করবো স্বাভাবিকভাবে সিরিজ শেষ করার।‌’

১ আগস্ট কোয়ারেন্টাইন শেষে মিরপুরে অনুশীলন করবে বাংলাদেশ এবং অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল। ৩ আগস্ট মাঠে গড়াবে দু’দলের প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচ।

সূত্র: সময় টিভি

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on email

সর্বাধিক পঠিত

সর্বশেষ সংবাদ