Skip to content

বাংলাদেশের সাবেক রাষ্ট্রপতি শাহাবুদ্দিন আহমেদ মারা গেছেন

বাংলাদেশের সাবেক রাষ্ট্রপতি শাহাবুদ্দিন আহমেদ মারা গেছেন

বাংলাদেশের সাবেক রাষ্ট্রপতি বিচারপতি শাহাবুদ্দিন আহমেদ মারা গেছেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯২ বছর।

বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের স্পেশাল অফিসার মোহাম্মদ সাইফুর রহমান জানান, শনিবার (১৯ মার্চ) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

বার্ধক্যজনিত বিভিন্ন জটিলতা নিয়ে তিনি ফেব্রুয়ারি থেকে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন ছিলেন।

শাহাবুদ্দিন আহমেদ মৃত্যুকালে দুই ছেলে ও দুই মেয়ে রেখে গেছেন।

১৯৩০ সালে নেত্রকোনায় জন্মগ্রহণ করা শাহাবুদ্দিন আহমেদ ১৯৯০ থেকে ১৯৯৫ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশের প্রধান বিচারপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯০ সালের ডিসেম্বরে তৎকালীন রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ সরকারের পতন হলে তিনি অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। পরে অরাজনৈতিক ব্যক্তিদের নিয়ে একটি তত্ত্বাবধায়ক সরকার গঠন এবং একটি অবাধ ও সুষ্ঠু সাধারণ নির্বাচনের আয়োজন করেন। পরবর্তীতে জাতীয় সংসদে আইন পাসের মাধ্যমে সংসদীয় পদ্ধতির সরকার ব্যবস্থা চালুর পর তিনি রাষ্ট্রপতি পদ থেকে পদত্যাগ করে আবার প্রধান বিচারপতি হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন।

১৯৯৬ সালের ২৩ জুলাই তিনি আওয়ামী লীগ সরকারের মনোনয়নে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আবার রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হন এবং ২০০১ সালে অবসর গ্রহণ করেন।

রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক

বিচারপতি শাহাবুদ্দিন আহমেদের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ তার শোক বার্তায় শাহাবুদ্দিন আহমেদের রুহের মাগফিরাত কামনা করেন এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শোকবার্তায় তার আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

এ ছাড়া শাহাবুদ্দিন আহমেদের মৃত্যুতে প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীও গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। তিনি তার বিদেহি আত্মার মাগফিরাত কামনা এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন।

সূত্র: ভয়েজ অব আমেরিকা

সর্বাধিক পঠিত

সর্বশেষ সংবাদ