Skip to content

বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় ৫ জন নিহত

বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় ৫ জন নিহত

বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকা জেলার সাভারে এবং কুড়িগ্রাম ও সিরাজগঞ্জ জেলায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ৫ জন নিহত ও ৭ জন আহত হয়েছেন।

সাভারে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২

রাজধানী ঢাকার অদূরে সাভারে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় দুজন নিহত হয়েছেন।

শনিবার (২৪ ডিসেম্বর) ভোরে ঢাকা–আরিচা মহাসড়কের আশুলিয়ার নয়ারহাটের ধনিয়া এলাকায় অজ্ঞাত গাড়ি চাপায় এক মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন।

সাভার হাইওয়ে পুলিশ জানায়, ভোর রাতে অজ্ঞাত ওই মোটরসাইকেল আরোহীকে অজ্ঞাত একটি গাড়ি চাপা দেয়। পরে স্থানীয়রা তাকে দ্রুত উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য নিকটস্থ একটি হাসপাতালে নিলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

পরে খবর পেয়ে সাভার হাইওয়ে থানা পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করেছে।

অপরদিকে সাভারে সিএনবি–আশুলিয়া সড়কের কলমার ঢাল এলাকায় লেগুনা ও মিনিবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে।

শনিবার সকালে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

সাভার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দীপক চন্দ্র সাহা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

কুড়িগ্রামে বাসের ধাক্কায় ২ জন নিহত, আহত ৫

কুড়িগ্রাম জেলা সদরের বেলগাছা ইউনিয়নের ত্রিমোহনী এলাকায় বাসের ধাক্কায় দুজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও পাঁচজন।

শনিবার (২৪ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে কুড়িগ্রাম-রংপুর সড়কের ত্রিমোহনী এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত মো. আবদুল হান্নান (৪৫) সদর উপজেলার কাঁঠালবাড়ী ইউনিয়নের টগরাইহাট এলাকার বাসিন্দা। নিহত অপরজনের পরিচয় জানা যায়নি।

এদিকে আহতরা হলেন, পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে কর্মরত আব্দুস সামাদ, সদর উপজেলার পলাশবাড়ি এলাকার আনিছুর রহমান, টাঙ্গাইলের কালিহাতি উপজেলার স্বপন, রংপুরের কাউনিয়া উপজেলার মিজানুর রহমান ও উলিপুর উপজেলার সাতদরগার এলাকার ওবায়দুল হক। এর মধ্যে আব্দুস সামাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাঁকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বাকিরা কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, কুড়িগ্রামের উলিপুর উপজেলা থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী একটি বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে অটোরিকশাকে ধাক্কা দেয়। এ সময় বাসটি রাস্তার পাশে থাকা একটি মুদির দোকানে উঠে যায়। এতে অটোরিকশাচালক দ্রুত লাফিয়ে জীবন বাঁচালেও অটোতে থাকা যাত্রী আবদুল হান্নান ও অটোরিকশার সামনে দাঁড়িয়ে থাকা এক ব্যক্তি ঘটনাস্থলেই মারা যান।

পরে স্থানীয়রা পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসে খবর দিলে লাশ উদ্ধার করে বাসটি জব্দ করে থানায় নেওয়া হয়। এ ছাড়া বাসচালক আহত হওয়ায় চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

কুড়িগ্রাম সদর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) জাহিদ হাসান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘নিহত দুজনের লাশ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। একজনের নাম আব্দুল হান্নান অপর জনের নাম পরিচয় পাওয়া যায় নাই। ঘাতক বাসটি থানায় নেওয়া হয়েছে’।

সিরাজগঞ্জে ট্রাক্টর-ভ্যান সংঘর্ষে কৃষক নিহত

সিরাজগঞ্জ জেলার তাড়াশ উপজেলার সানদা নামক স্থানে ট্রাক্টর ও ভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষে ভ্যানযাত্রী একজন কৃষক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আরও দুজন আহত হয়েছেন।

শুক্রবার (২৩ ডিসেম্বর) বিকেলে ভ্যানযোগে শেরপুর যাওয়ার পথে ওই স্থানে বিপরীত দিক থেকে আসা ট্রাক্টরের সঙ্গে সংঘর্ষে এ ঘটনাটি ঘটে।

নিহত কৃষক মাহা আলম (৩৫) সানদা গ্রামের ইদ্রিস আলীর ছেলে।

তাড়াশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহিদুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, ‘মাহা আলম শুক্রবার বিকেলে ভ্যানযোগে শেরপুর যাওয়ার পথে উল্লেখিত স্থানে বিপরীত দিক থেকে আসা ট্রাক্টরের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। এতে তিনি ঘটনাস্থলে নিহত ও দুজন আহত হন। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মাহা আলমের লাশ উদ্ধার করে। কিন্তু কোনো অভিযোগ না থাকায় তার লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে’।

এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট থানায় একটি মামলা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

সূত্র: ভয়েজ অব আমেরিকা