Skip to content

পঞ্চায়েতে প্রার্থী প্রত্যাহারের দাবি নিয়ে সিপিএম নেতার বাড়িতে চড়াও হয়ে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে

পঞ্চায়েতে প্রার্থী প্রত্যাহারের দাবি নিয়ে সিপিএম নেতার বাড়িতে চড়াও হয়ে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে

Advertisement

খড়গপুর ২৪×৭ ডিজিটাল: পঞ্চায়েতে প্রার্থী প্রত্যাহারের দাবি নিয়ে সিপিএম। নেতার বাড়িতে চড়াও হয়ে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠল বিজেপির বিরুদ্ধে। নন্দকুমারের টিকারামপুর এলাকার এই ঘটনাকে ঘিরে এলাকাজুড়ে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়ায়। স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, নন্দকুমারের টিকারামপুর এলাকার বাসিন্দা সিপিএমের নন্দকুমার এরিয়া কমিটির সম্পাদক সন্দীপ জানা। এমন অবস্থায় রবিবার বিকেলে এই সন্দীপ জানার বাড়িতে গিয়ে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে এলাকার বিজেপি নেতৃত্বের বিরুদ্ধে। 

অভিযোগ, এলাকায় সিপিএম প্রার্থীদের প্রত্যাহারের দাবিতে এক সঙ্গীকে নিয়ে ওই সিপিএম নেতার বাড়িতে গিয়েছিলেন নন্দকুমারের ২ নম্বর মন্ডলের সহ-সভাপতি সুদাম বেতাল। অভিযোগ, সেখানেই এলাকায় সিপিএম প্রার্থীদের দলীয় প্রতীকে নির্বাচনে লড়াইয়ের বিরোধিতা করেন ওই বিজেপি নেতা। যা নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে তীব্র বচসা শুরু হয়। আর তাতেই ওই সিপিএম নেতাকে প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হয় বলেও অভিযোগ। 

– Advertisement –

সিপিআই(এম) নন্দকুমার এরিয়া কমিটির সম্পাদক সন্দীপ জানা অভিযোগ করে বলেন, “বিজেপির ওই নেতা পুলিশ পরিচয় দেওয়া এক ব্যক্তিকে আমার বাড়িতে নিয়ে এসে পঞ্চায়েতে প্রার্থী দিলে প্রাণে মেরে দেওয়ার হুমকি দিয়েছেন। নন্দকুমার এলাকায় সিপিআই (এম)’এর প্রতি মানুষের আস্থা বাড়ছে তা বিজেপি ও তৃণমূল বুঝতে পেরেছে। তাই যে কোনও প্রকারে বামেদের আটকাতে নানাভাবে কৌশল অবলম্বন করতে চাইছে।” আর এমনই অভিযোগ জানিয়ে ইতিমধ্যেই নন্দকুমার থানার দ্বারস্থ হয়েছেন নন্দকুমারের ওই সিপিএম নেতা সন্দীপ জানা।

সিপিএম-এর জেলা সম্পাদক নিরঞ্জন সিহি বলেন, “সাধারণ গ্রামের মানুষ বিজেপি ও তৃণমূলের বিরুদ্ধে জোট বেঁধেছেন। তাই তৃণমূল, বিজেপি ও পুলিশ যৌথভাবে সিপিআই(এম)কে এই পঞ্চায়েত নির্বাচন থেকে বিরত করতে চাইছে।” যদিও এই বিষয়ে অভিযুক্ত ওই বিজেপি নেতা সুদাম বেতাল বলেন, “২০১৮ সালের আগে আমরা একই রাজনৈতিক দলের মতাদর্শে বিশ্বাসী ছিলাম। কিন্তু বর্তমানে এলাকায় বিজেপির নেতৃত্ব দেওয়ায় সুপরিকল্পিতভাবে আমার উপর মিথ্যা অভিযোগ আনা হচ্ছে। যা একেবারেই ভিত্তিহীন।” পাশাপাশি নন্দকুমার থানার ওসি মনোজ কুমার ঝাঁ জানিয়েছেন, “অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে।”

Advertisement

বার্তা সূত্র