Skip to content

দেশের প্রেক্ষাগৃহে চাঁদরাত পর্যন্ত চলবে বলি সিনেমা ক্রু

দেশের প্রেক্ষাগৃহে চাঁদরাত পর্যন্ত চলবে বলি সিনেমা ক্রু

খবরটির মধ্যে অনেকগুলো মাত্রা রয়েছে। বলিউড ছবির ঢাকাই ঝড় যখন অস্তগামী তখনই দেশের সবচেয়ে বড় ও সফল চেইন স্টার সিনেপ্লেক্স ঘোষণা দিয়েছে বলিউড আমদানির।  প্রতিষ্ঠানটি আগে হলিউডের ছবি আমদানি করলেও এবার হাত বাড়ালো বলিউড বাজারে। তারা প্রথমবার আমদানি করছে ভিন্ন ধারার নারীপ্রধান একটি ছবি। নাম ‘ক্রু’। না, চেনা পথে হাঁটেনি ঢাকাই মাল্টিপ্লেক্সের স্টার কর্তৃপক্ষ। শাহরুখ-সালমানদের এড়িয়ে বেছে নিয়েছেন নারী প্রধান ছবি, যার নায়ক মূলত বলিউডের তিন প্রজন্মের তিন নায়িকা- টাবু, কারিনা ও কৃতি।

ছবিটি ২৯ মার্চ ভারতসহ বিশ্বের নানা দেশের সঙ্গে একই সময়ে মুক্তি পাচ্ছে বাংলাদেশেও। নিশ্চিতভাবেই চলবে স্টার সিনেপ্লেক্সের সবগুলো শাখায়। সঙ্গে যুক্ত হবে অন্য প্রেক্ষাগৃহ-ও। জানালেন প্রতিষ্ঠানটির জ্যেষ্ঠ বিপণন কর্তা ও গণমাধ্যম মুখপাত্র মেসবাহ উদ্দিন আহমেদ।

মজার তথ্য, দেশের চলমান সংস্কৃতিতে রোজার মাসে কোনও সিনেমা মুক্তি পায় না। সিনেমাওয়ালাদের মধ্যে মাসজুড়ে প্রস্তুতি চলতে থাকে ঈদের। এবার তো সেই প্রস্তুতিতে আগুন ধরে দাউ দাউ করে জ্বলছে। কারণ, খবর মিলছে অন্তত ১৫টি ছবি রয়েছে এই ঈদে মুক্তির মিছিলে। অথচ দেশের প্রেক্ষাগৃহের সংখ্যা ও পরিস্থিতি চারটি ছবির বেশি ধারণ করার সুযোগ নেই। এরসঙ্গে ঈদের আগেই যুক্ত হচ্ছে বলিউডের ‘ক্রু’! তাই নয়, বিদেশি ছবি আমদানির ক্ষেত্রে স্পষ্ট শর্ত রয়েছে, দুই ঈদে বা উৎসবে বিদেশি ছবি দেশে মুক্তি দেওয়া যাবে না। তবে কি ঈদ উৎসবেও চলবে ‘ত্রু’?

চাঁদরাত পর্যন্ত দেশে চলবে বলিউডের ‘ক্রু’ এমন দুশ্চিন্তা থেকে খানিক রক্ষা মিললো মেসবাহ উদ্দিন আহমেদের বক্তব্যে। তিনি বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমরা তো সরকারি নীতির বাইরে কিছু করবো না। অতীতেও করিনি। ছবিটি ঈদের দিন থেকে আর চালাবো না। চাঁদ উঠলেই ছবিটির প্রদর্শনী ক্লোজ করবো। তাছাড়া এবার দেশেই যে পরিমাণের বড় ও ভালো সিনেমা মুক্তি পাচ্ছে, সেগুলোর পর্যাপ্ত শো দিতেই আমাদের হিমশিম খেতে হবে বলে মনে হচ্ছে।’        

এই কর্মকর্তা জানান, হলিউডের ছবির পাশাপাশি এখন থেকে স্টার সিনেপ্লেক্স বলিউডসহ বিশ্বের অন্যান্য ইন্ডাস্ট্রির ছবিও নিয়মিত আমদানি করতে চান। যার শুরুটা করলেন রোজার মাসে ভিন্ন মাত্রার ছবি ‘ক্রু’ দিয়ে।

রাজেশ কৃষ্ণন পরিচালিত এই সিনেমায় বিমানবালার ভূমিকায় অভিনয় করেছেন টাবু, কারিনা ও কৃতি। মূলত এয়ারলাইন ইন্ডাস্ট্রির পটভূমিতে নির্মিত চলচ্চিত্র এটি। যেখানে বিমানবালার জীবন, ক্যারিয়ার, আকাঙ্ক্ষাসহ নানান জটিলতার গল্প উঠে আসবে। এ সিনেমায় প্রথমবারের মতো একসঙ্গে কাজ করেছেন টাবু ও কারিনা।



বার্তা সূত্র