Skip to content

ঢাকার রোডমার্চে না’গঞ্জ ঐক্য পরিষদের হাজারো নেতাকর্মীদের অংশগ্রহন

ঢাকার রোডমার্চে না’গঞ্জ ঐক্য পরিষদের হাজারো নেতাকর্মীদের অংশগ্রহন

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকার ২০১৮ সালের জাতীয় নির্বাচনী ইশতেহারে সংখ্যালঘুদের প্রতি যেসব প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল, সেসব প্রতিশ্রুতি পূরণের দাবিতে ঢাকায় অনু‌ষ্ঠিত বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের রোডমার্চ ও সমা‌বে‌শে অংশগ্রহন ক‌রে‌ছে নারায়নগঞ্জ জেলা ও মহানগর হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ নেতৃবৃন্দ।

শনিবার (৭ জানুয়ারি) সকাল ১১টায় নারায়ণগঞ্জের শীতলক্ষ্যা, উকিলপাড়া ও জেলার বিভিন্ন উপজেলা হতে হাজার হাজার নেতাকর্মী নিয়ে রাজধানীর রমনা কালী মন্দির-সংলগ্ন সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে অনু‌ষ্ঠিত সমাবেশে অংশগ্রহন করেন নেতৃবৃন্দ। সমাবেশে নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দরাও তা‌দের কর্মীদের নিয়ে অংশগ্রহন করেন। 

সমা‌বেশ থে‌কে সরকা‌রের প্রতি সাত দফা দাবি পেশ করে অবিলম্বে তা বাস্তবায়নের দাবি জানান কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ। অন্যথায় আগামী জাতীয় নির্বাচনে আড়াই কোটি সংখ্যালঘু ভোটার বিকল্প চিন্তা করবে বলে হুঁশিয়ারি দেন তারা। প্রয়োজনে তারা নির্বাচন বয়কট করবেন বলেও ঘোষণা দেন। 

সাত দফা দাবি হলো, জাতীয় সংখ্যালঘু কমিশন গঠন, সংখ্যালঘু সুরক্ষা আইন প্রণয়ন, দেবোত্তর সম্পত্তি সংরক্ষণ আইন প্রণয়ন, সমতলে অধিবাসীদের জন্য পৃথক ভূমি কমিশন গঠন, অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পণ আইন যথাযথ বাস্তবায়, পার্বত্য শান্তি চুক্তি ও পার্বত্য ভূমি কমিশনের যথাযথ কার্যকরীকরণ, বৈষম্য বিলোপ আইন প্রণয়ন।

সমা‌বেশ শে‌ষে বেলা সোয়া ৩টায় রমনা কালীমন্দির থেকে রোডমার্চ বের করে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ে অভিমুখে রওনা দেয় সংগঠন‌টি ।

রোডমার্চে নারায়ণগঞ্জ জেলার প‌ক্ষে নেতৃত্ব দেন জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি প্রদীপ কুমার দাস ও সাধারণ সম্পাদক রঞ্জিত মন্ডল, নারায়ণগঞ্জ জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শিখন সরকার শিপন, মহানগর হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক নিমাই চন্দ্র দে। 

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অরুন কুমার দাস, জেলা ঐক্য পরিষদের অন্যতম সহ সভাপতি পিন্টু পলিকাপ পিউরিফিকেসন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রিচার্ড সৌরভ দেউরী, সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য অসিম বড়ুয়া, রূপগঞ্জ উপজেলা ঐক্য পরিষদের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা রমাকান্ত সরকার, সাধারণ সম্পাদক কৃষ্ণ গোপাল শর্মা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মিলন সরকার, সোনারগাঁ উপজেলা ঐক্য পরিষদের সভাপতি লোকনাথ দত্ত, সাধারণ সম্পাদক সহদেব দাস শিশির, সদর উপজেলা ঐক্য পরিষদের সভাপতি প্রদীপ কুমার দাস, সহ সভাপতি রতন মন্ডল, সাধারণ সম্পাদক রাজীব তালুকদার, বন্দর উপজেলা ঐক্য পরিষদের  সভাপতি  হরি সাহা, সহ সভাপতি নারায়ন বর্মন, সাধারণ সম্পাদক সুজন দাস, সাংগঠনিক সম্পাদক কার্তিক সুত্রধর, আড়াইহাজার উপজেলা ঐক্য পরিষদের সভাপতি হারাধন দে, সাধারণ সম্পাদক দুলাল রায়, সিদ্ধিরগঞ্জ ঐক্য পরিষদের আহবায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা বিজয় সরকার, সদস্য সচিব নারায়ন দাস, জেলার কোষাধ্যক্ষ পিন্টু রায়, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি শিশির ঘোষ অমর, সাধারণ সম্পাদক খোকন বর্মন, বন্দর উপজেলা পুজা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শ্যামল বিশ্বাস, সোনারগাঁ পুজা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক এড. প্রদীপ ভৌমিক, ফতুল্লা থান পূজা পরিষদের সভাপতি প্রদীপ মন্ডল, সাধারণ সম্পাদক শিবু দাস, জেলা পুজা পরিষদের নেতা সুশীল দাস, উত্তম সাহা, কৃষ্ণ আচার্য্য, ঐক্য পরিষদের নেতা তপন ঘোষ, তপন গোপ সাধু, বিপ্লব কুন্ডু, পংকজ রায়, মিঠু ব্যানার্জী, বিকাশ সাহা, সুমন সাহা, জেলা যুব ঐক্য পরিষদের সভাপতি আনন্দ কুমার সেরাওগী সুমন, সাধারণ সম্পাদক ভজন চন্দ্র দাস, মহানগর যুব ঐক্য পরিষদের সভাপতি এড. অঞ্জন দাস, সাধারণ সম্পাদক রিপন কর্মকার, সাংগঠনিক সম্পাদক মিঠুন দত্ত বিল্লু, রুপগঞ্জ সভাপতি বাবুল শীল, সম্পাদক প্রণব পাল, আড়াইহাজার সভাপতি অটল, সম্পাদক রিপন কর, বন্দরের সভাপতি তুলশী ঘোষ, সম্পাদক জিতু দাস, সিদ্ধিরগঞ্জের সভাপতি গোপাল বর্মন, সঞ্জয় পোদ্দার প্রমুখ।



বার্তা সূত্র