চট্টগ্রামে ৩ দিনের মধ্যে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ইংরেজি সাইনবোর্ড সরানোর নির্দেশ

চট্টগ্রাম মহানগরীতে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ইংরেজিতে লেখা সাইনবোর্ড ৩ দিনের মধ্যে সরিয়ে বাংলায়  প্রতিস্থাপনের নির্দেশনা দিয়েছেন চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন। ২১ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে দিনভর চট্টগ্রাম মহানগরীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটগণ এই নির্দেশনা প্রদান করেন।

চট্টগ্রাম মহানগরীর জিইসি, কাজীর দেউড়ি, জামালখান সড়ক, নিউ মার্কেট ও চকবাজার এলাকায় এই অভিযান পরিচালিত হয়।

চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উমর ফারুক জানান, আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী সকল দোকান বা ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সাইনবোর্ড বাংলায় লেখা বাধ্যতামূলক। কিন্তু বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ইংরেজিতে তাদের সাইনবোর্ড প্রদর্শন করছে। এর প্রেক্ষিতে ২১ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে নগরীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালিত হয়। অভিযানে যেসব ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ইংরেজিতে লেখা সাইনবোর্ড পাওয়া গেছে সেসব প্রতিষ্ঠানকে তিনি বাংলা ভাষায় সাইনবোর্ড ব্যবহারের নির্দেশনা দেন। এই জন্য তিন দিন সময় বেঁধে দেয়া হয়েছে।

চট্টগ্রাম নগরীর ব্র্যান্ড ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ওয়েল ফুড, সুগার বান, সেন্ট্রাল শপিং কমপ্লেক্স, ডিয়ারলি আইসস্ক্রিম, ফ্লেভারস, জামান রেস্টুরেন্ট মেজবানি অ্যান্ড কাবাব, নভোএয়ার লিমিটেড, রয়েল পার্ক রেসিডেন্টশিয়াল হোটেল, মিনিসো, বি-টু, ঢাকা বুট বার্ন, হোসাইন লাইটিং, ভিআইপি অপটিকসসহ বড় বড় প্রতিষ্ঠানসমূহে ইংরেজি সাইনবোর্ডের পরিবর্তে বাংলায় লেখা সাইনবোর্ড প্রতিস্থাপনের নির্দেশনা প্রদান করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উমর ফারুক ।

এছাড়া চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের অপর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মিজানুর রহমান নগরীর চকবাজার, কাজীর দেউড়ি ও এমএ আজিজ স্টেডিয়াম এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন। নগরীর জামাল খান এলাকায় পরিচালিত অভিযানে নেতৃত্ব দেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রেজওয়ানা আফরিন।

প্রতিটি অভিযানেই তারা ব্যবসায়ীদের তিন দিনের মধ্যে ইংরেজি সাইনবোর্ড তুলে নেওয়ার জন্য নির্দেশনা প্রদান করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।