Skip to content

খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় রিকশা শ্রমিক আন্দোলনের দোয়া মাহফিল

খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় রিকশা শ্রমিক আন্দোলনের দোয়া মাহফিল

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল করেছে জাতীয়তাবাদী রিকশা শ্রমিক আন্দোলন।

সোমবার বিএনপির নয়াপল্টন কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এই দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণের আহবায়ক আব্দুস সালাম।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার বাদশা ভাসানীর সভাপতিত্বে এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের বিশেষ সহকারী শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস।

আরও বক্তব্য দেন ঢাকা বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, তাতীদলের যুগ্ম আহবায়ক মনিরুজ্জামান, শ্রমিক দলের প্রচার সম্পাদক মঞ্জুরুল ইসলাম মঞ্জু, ঢাকা মহানগরের আহবায়ক সুমন ভূইয়া, সদস্য সচিব বদরুল আলম সবুজসহ প্রমুখ।

দোয়া মাহফিলে আব্দুস সালাম বলেন, রাষ্ট্রযন্ত্র ও সরকারদলীয় সন্ত্রাসীদের ব্যবহার করে সারাদেশে গণতন্ত্রকামী মানুষকে আজ জিম্মি করে রাখা হয়েছে। আজ দেশের কোথায় নিরাপত্তা নেই, বাকস্বাধীনতা নেই। এ জিম্মিদশা থেকে মুক্তি পেতে হলে প্রয়োজন ৭১ সালের মতো ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন। আর এরজন্য সবাইকে প্রস্তুতি নিয়ে রাখতে হবে। যেকোনো সময় ডাক আসবে, তখন গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলনে সবাইকে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস বলেন, যখন জাতীয় কোনো দুর্যোগ নেমে আসে তখন পুরো জাতি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। তেমনি দেশ ও জনগণের বিরুদ্ধে বর্তমান সরকারের চক্রান্তে দেশ আজ ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে। এর আগেও জনগণের ওপর অনেক অত্যাচার ও বাকস্বাধীনতা নেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছিলো, পারেনি। এ সরকারও পারবে না ইনশাআল্লাহ।

রিকশা শ্রমিকরা তাদের বক্তব্যে বলেন, আজ আমরা অভাবে আছি, ঠিকমত পেটভরে খেতে পারি না। কিন্তু এরচেয়েও বড় কষ্ট গণতন্ত্রের মা খালেদা জিয়া আজ বন্দি। প্রয়োজনে আমরা একমাস রিকশা চালাব না, না খেয়ে থাকব। তবু বিএনপি নেতাদের বলব-কঠোর আন্দোলনের ঘোষণা দেন। খালেদা জিয়াকে মুক্তি না করে ঘরে ফিরে যাব না।

ঢাকাটাইমস/১১মার্চ/জেবি



বার্তা সূত্র