কোভিশিল্ডের প্রথম দফা চালান ভারতের তেরোটি শহরে পাঠানো হয়েছে

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মহারাষ্ট্রের পুণে থেকে আজ সকালে করোনার প্রতিষেধক কোভিশিল্ডের প্রথম দফা চালান ভারতের তেরোটি শহরে পাঠানো হয়েছে। দিল্লি, কলকাতা, গৌহাটি, শিলং, চেন্নাই, ভুবনেশ্বর, বিজয়ওয়াড়া, লখনৌ, আমেদাবাদ, হায়দরাবাদ, বেঙ্গালুরু, চণ্ডীগড় আর পাটনায় প্রতিষেধক পৌঁছে গিয়েছে। এ ছাড়া আরও ১৯টি শহরে দফায় দফায় চারটি বিমান সংস্থা বিশেষ উড়ানে এই প্রতিষেধক নিয়ে যাবে।

ভারতের বিমানমন্ত্রী হরদীপ সিং পুরী জানিয়েছেন, ৫ কোটি ৬৫ লক্ষ প্রতিষেধক প্রথম দফায় পাঠানো হচ্ছে। অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় ও অ্যাস্ট্রা জেনেকা যৌথ ভাবে উদ্ভাবন করেছে এবং ভারতে সিরাম ইনস্টিটিউট তৈরি করছে। এর পরে পুরোপুরি ভারতীয় সংস্থা ভারত বায়োটেকের তৈরি কোভ্যাকসিন পাঠানো হবে।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলে দিয়েছেন, প্রথম যে তিন কোটি লোককে করোনার প্রতিষেধক দেওয়া হবে তাঁরা প্রত্যেকেই ঝুঁকিপূর্ণ কাজ করছেন। সোমবার মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, কোনও রাজনীতিবিদ বা বিশিষ্ট কেউ নিজের প্রভাব খাটিয়ে এই দলে ঢুকতে পারবেন না। শুধুমাত্র ফ্রন্টলাইন ওয়ার্কার অর্থাৎ ঝুঁকিপূর্ণ কাজে নিয়োজিত লোকেরা, যেমন স্বাস্থ্যকর্মী, পুলিশ, এঁরাই প্রাথমিক টিকা পাবেন।

রবিবার ভারত সরকার কোভিশিল্ড অর্ডার দিয়েছে প্রতিটি ডোজ ২১০ টাকা করে। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, এই প্রথম তিন কোটি টিকার জন্য কোনও টাকা দিতে হবে না। এটা কেন্দ্রীয় সরকার দেবে‌। ওদিকে ভারত বায়োটেকের কোভ্যাকসিনের ডোজপ্রতি দাম ঠিক হয়েছে ২৯৫ টাকা করে। আগামী ১৬ই জানুয়ারি দেশজুড়ে টিকাদান কর্মসূচি শুরু হবে। তার আগেই সর্বত্র টিকা পৌঁছে যাবে।

সূত্র: ভয়েজ অব আমেরিকা


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।