কৃষি ব্যাংক ডাটা এন্টি অপারেটরদের বিক্ষোভ

কৃষি ব্যাংক ডাটা এন্টি অপারেটরদের বিক্ষোভ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকের কর্মকর্তা কর্মচারীদের পদোন্নতির ক্ষেত্রে নিজস্ব নীতিমালা রয়েছে। সে নীতিমালা অনুসরণ করে ব্যাংকের পিয়ন, দপ্তরিসহ সব গ্রেডের পদোন্নতি প্রদান করা হয়েছে। তবে ডাটা এন্ট্রি অপারেটরদের পদোন্নতির ক্ষেত্রে সেটি না করে নীতিমালার বাইরে অন্য পদে তাদের পদোন্নতি দেওয়ার অভিযোগে বিক্ষোভ করেছে ব্যাংকটির ডাটা এন্টি অপারেটররা।

সোমবার (২১ ডিসেম্বর) দ্বিতীয় দিনের মতো এ বিক্ষোভ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। এর একদিন আগে (রোববার-২০ ডিসেম্বর) কৃষি ব্যাংক কর্মচারী ইউনিয়ন সিবিএ কর্তৃক আয়োজিত ডাটা এন্ট্রি অপারেটর পদে কর্মরত পরিদর্শক পদে পদোন্নতির দাবিতে এ অবস্থান কর্মসূচি শুরু হয়।

আন্দোলনরত কর্মচারীরা দাবি করেন, ২০১১ সাল থেকে এ পদে যোগদানের পর অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারীরা দুইবার পদোন্নতি পেলেও ডাটা এন্ট্রি অপারেটরদের কোনো পদোন্নতি হয়নি। ২০১১ সাল থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত বিভিন্ন সময়ে ডাটা এন্ট্রি বা কন্ট্রোল অপারেটর পদে ৩১২ জনকে নিয়োগ দেয়া হয়। এ নিয়োগের পরে তাদেরকে পরিদর্শক পদে শূন্য বিবেচনায় পদোন্নতি দেয়ার কথা থাকলেও এখন পর্যন্ত পদোন্নতি দেয়া হয়নি।

কৃষি ব্যাংক কর্মচারী ইউনিয়ন সিবিএ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মো. মমিনুল হক বলেন, ‘বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক চাকরি প্রবিধানমালা ২০০৮, কৃষি ব্যাংক কর্মকর্তা কর্মচারী পদোন্নতি নীতিমালা ২০১২, কৃষি ব্যাংকের অর্গানোগ্রাম ২০১৪ এর পদোন্নতি নীতিমালার আলোকে নিয়োগ দেয়ার দাবি জানাই। এ নীতিমালায় ‘২০১২ এর বিশেষ বিধানে উল্লেখ আছে’ টাইপিস্ট কাম ডাটা এন্ট্রি অপারেটরদের পরবর্তী পদোন্নতি রোহিত প্রবিধানমালা অন্তর্ভুক্ত নিম্নমান সহকারীদের অনুরূপ বিধান অনুযায়ী সুপারভাইজার পদে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে সম্পন্ন হবে। পর্যায়ক্রমে উক্ত পদোন্নতির মাধ্যমে কিংবা অন্য কোনোভাবে যুক্ত পদ শূন্য হলে সেগুলো বিলুপ্ত হবে। এ বিষয়ে কর্মকর্তা বরাবর আবেদন করা হলেও কর্তৃপক্ষ কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি। এর ফলে অবস্থান কর্মসূচিতে বঞ্চনার শিকার ডাটা এন্ট্রি অপারেটর পদে কর্মরতদের পদোন্নতি না দেয়া পর্যন্ত বা সুনির্দিষ্ট আশ্বাস না দেয়া পর্যন্ত অবস্থান কর্মসূচি চলবে।’

আন্দোলনরতরা গণমাধ্যমকে দেয়া একটি লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করে, নীতিমালা অনুযায়ী পরিদর্শক পদে পদোন্নতি প্রদানের জন্য বিবেচনা করতে লিখিত আবেদন জানানো হয়। ২০১৪ সালের জনবল কাঠামোর ভুল ব্যাখ্যা করে পরিদর্শক পদ বিলুপ্ত বিবেচনা করে ডাটা এন্টি অপারেটরদের এ আবেদন আমলে নেওয়া হয়নি।

অন্যদিকে, ২০১৬ সালে নিম্নমান সহকারীদের পরিদর্শক পদে পদোন্নতি প্রদান করা হয়। এটিকে বেআইনি বলে দাবি করেন মো. মমিনুল হক।

DMCA.com Protection Status

সূত্র: সময় টিভি


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।