Skip to content

কলেজ শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের হুমকিঃ বাসের চালক-হেল্পার রিমান্ডে

কলেজ শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের হুমকিঃ বাসের চালক-হেল্পার রিমান্ডে

ঢাকার বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজের শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের হুমকি দেওয়ার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় ঠিকানা পরিবহনের বাসচালক মো. রুবেল ও তার সহকারী মো. মেহেদী হাসানের একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

সোমবার ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ইয়াসমিন আরা রিমান্ডের এ আদেশ দেন। এর আগে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা চকবাজার থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) কৃষ্ণপদ মজুমদার দুই আসামিকে আদালতে হাজির করে সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন করেন।

আবেদনে বলা হয়, গত ২০ নভেম্বর সকালে ওই শিক্ষার্থী শনির আখড়া থেকে বদরুন্নেসা কলেজের উদ্দেশ্যে বের হয়। পথিমধ্যে ওই শিক্ষার্থীর সঙ্গে বাসের কন্ডাক্টরের ভাড়া নিয়ে বাকবিতণ্ডা হয়। বাস থেকে নামার সময় তাকে বলে একা পেলে দেখে নেবে। এক পর্যায়ে অজ্ঞাত কন্ডাক্টর অসৎ উদ্দেশে ওই শিক্ষার্থীর ওড়না ধরে টান দেয় এবং খারাপ কাজ করার কথা বলে।

পরবর্তীতে বিষয়টি নিয়ে বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজের শিক্ষার্থীরা বিচার চেয়ে রাস্তা অবরোধ করে। এ ঘটনায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্যাপক আলোচনা ও সমালোচনার ঝড় ওঠে।

প্রাথমিক তদন্তে আসামিদের বিরুদ্ধে ঘটনায় জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া গেছে। ঘটনার মূল রহস্য উদঘাটন, আপত্তিকর কার্যকলাপের বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ, এ অপরাধ সংঘটনসহ আরও কোনো অপরাধে জড়িত আছে কিনা, মেয়েদের সঙ্গে সর্বদা আপত্তিকর ঘটনা তারা ঘটান কিনা জানার জন্য সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুরের প্রার্থনা করেন তদন্ত কর্মকর্তা।

আসামিদের পক্ষে অ্যাডভোকেট ফিরোজ মোল্লা রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিন আবেদন করেন। রাষ্ট্রপক্ষ থেকে জামিনের বিরোধিতা করা হয়। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত জামিন নামঞ্জুর করে তাদের রিমান্ডের আদেশ দেন বলে জানান ফিরোজ মোল্লা।

এদিকে সোমবার ওই শিক্ষার্থী ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট নিভানা খায়ের জেসীর আদালতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ২২ ধারায় জবানবন্দি দেন। এরপর তাকে তার বাবার জিম্মায় যাওয়ার আদেশ দেন আদালত।

ওই শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের হুমকি দেওয়ার ঘটনায় তার বাবা চকবাজার থানায় মামলা দায়ের করেন। এরপর রোববার (২১ নভেম্বর) নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

সূত্র: ভয়েজ অব আমেরিকা