করোনা: ৭ মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ শনাক্ত ২ হাজার ৮ শ ৯ জন, মৃত্যু ৩০

করোনা ভাইরাসে সাত মাসের মধ্যে ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ শনাক্ত হয়েছেন আরও দুই হাজার ৮০৯ জন। এছাড়া আড়াই মাসের সর্বোচ্চ মৃত্যু হয়েছে আরও ৩০ জনের। মৃতের মধ্যে ২৫ জন পুরুষ এবং ৫ জন নারী।

২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয় ২৫ হাজার ১১১ জনের। শনাক্তের হার ১১ দশমিক ১৯ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার এক দশমিক ৫২ শতাংশ। সোমবার (২২ মার্চ) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা যায়।

এর আগে গত ৭ জানুয়ারি করোনায় ৩১ জনের মৃত্যু হয়েছিল। এর আগে বছরের ২০ ডিসেম্বর ৩৮ জনের মৃত্যু ঘটে। আর আগস্টের ২০ তারিখ দুই হাজার ৮৬৮ জন শনাক্ত হয়েছিল। এর আগে ১৮ মার্চ গত আড়াই মাসে সর্বেোচ্চ শনাক্ত হয় ২ হাজার ১৮৭ জন।

এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮ হাজার ৭২০। মোট শনাক্তের সংখ্যা ৫ লাখ ৭৩ হাজার ৬৮৭ জন। নতুন করে সুস্থ এক হাজার ৭৫৪ জনসহ মোট সুস্থ ৫ লাখ ২৪ হাজার জন।

এর আগের দিন ২২ জনের মৃত্যু হয়েছে। শনাক্ত হয়েছিল দুই হাজার ১৭২ জন। সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ৬৮৭ জন।

বাংলাদেশে গত বছর ৮ মার্চ করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়ার এক বছর পর গত ৭ মার্চ শনাক্ত রোগীর সংখ্যা সাড়ে ৫ লাখ ছাড়িয়ে যায়। এর মধ্যে গত বছরের ২ জুলাই ৪ হাজার ১৯ জন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়, যা একদিনের সর্বোচ্চ শনাক্ত।

প্রথম রোগী শনাক্তের ১০ দিন পর গত বছরের ১৮ মার্চ দেশে প্রথম মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। এ বছর ১১ মার্চ তা সাড়ে আট হাজার ছাড়িয়ে যায়। এর মধ্যে গত বছরের ৩০ জুন এক দিনেই ৬৪ জনের মৃত্যুর খবর জানানো হয়, যা এক দিনের সর্বোচ্চ মৃত্যু।

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on email