করোনা আবহে ভারতে বিশ্বকাপ নিয়ে সংশয়ে আইসিসি – Kolkata24x7 | Read Latest Bengali News, Breaking News in Bangla from West Bengal’s Leading online Newspaper

করোনা আবহে ভারতে বিশ্বকাপ নিয়ে সংশয়ে আইসিসি - Kolkata24x7 | Read Latest Bengali News, Breaking News in Bangla from West Bengal's Leading online Newspaper

দুবাই: দেশে ফের মাথাচাড়া দিয়েছে করোনা৷ প্রতিদিন হু হু করে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা৷ ফলে ছ’ মাস পর ভারতের মাটিতে টি-২০ বিশ্বকাপের আয়োজন নিয়ে সংশয়ে আইসিসি৷ তবে ‘ব্যাক-আপ প্ল্যান’ তৈরি রয়েছে জানিয়েছে বিশ্বক্রিকেটের সর্বোচ নিয়ামক সংস্থা৷

করোনার জন্য গত বছর অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে টি-২০ বিশ্বকাপ স্থগিত হয়ে গিয়েছে৷ কিন্তু পূর্বনির্ধারিত সূচি অনুযায়ী চলতি বছর অক্টোবর-নভেম্বরে ভারতের মাটিতে হওয়ার কথা টি-২০ বিশ্বকাপ৷ অর্থাৎ বিশ্বকাপের আর মাত্র ৬ মাস বাকি। এই অবস্থায় দেশে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে৷ ৬ মার্চ অর্থাৎ মঙ্গলবার ভারতে নতুন করে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লক্ষ ১৫ হাজারের বেশি মানুষ।

এরপরেই আইসিসি-র সিইও জিওফ এলারডিস সংবাদসংস্থাকে জানিয়েছেন, ‘আমাদের ব্যাক-আপ প্ল্যানিং রয়েছে। তবে এখনও পর্যন্ত ভারতেই সূচি মেনে বিশ্বকাপ আয়োজনে জোর দেওয়া হচ্ছে। আমরা এখনই প্ল্যান বি নিয়ে ভাবছি না৷ আমরা বিসিসিআই-এর সঙ্গে যোগাযোগ রেখে চলেছি। ঠিক সময়েই একমাত্র বিকল্প পরিকল্পনা নিয়ে এগোনোর চিন্তাভাবনা করা হবে।’

৫৩ বছরের অস্ট্রেলিয়ান আরও জানিয়েছেন, কোভিড সময়ে কীভাবে খেলা চালিয়ে যাওয়া যায় তা নিয়ে অনান্য স্পোর্টস বডির সঙ্গে আলোচনা করা হচ্ছে৷ তিনি জানান, ‘ক্রিকেট খেলিয়ে সব দেশের সঙ্গে আমার আলোচনা করছি৷ পাশাপাশি অনান্য স্পোর্টস বডির সঙ্গে কথা বলচি৷ এই মুহূর্তে আমরা ভালো জায়গায় রয়েছি৷ কিন্তু আমাদের এটাও মানতে হবে, বিশ্ব দ্রুত পালটাচ্ছে৷’

এই মুহূর্তে টি-২০ বিশ্বকাপ নয়, জুনে ইংল্যান্ডে প্রথম ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনালকে পাখির চোখ করছে আইসিসি৷ এলারডিস জানিয়েছেন, আইসিসি আপাতত বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ আয়োজনকে পাখির চোখ করছে। সাউদাম্পটনে জুনের ১৮ থেকে ২২ তারিখ টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল। প্রথম টেস্ট বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হওয়ার লড়াইয়ে মুখোমুখি ভারত ও নিউজিল্যান্ড। তিনি বলেন, ‘এখনও আমরা বিশ্বকাপের টাইমলাইনের সম্মুখীন হয়নি আমরা। কিছু সময় হাতে রয়েছে। কয়েকমাসের মধ্যেই বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল। আপাতত সেদিকেই আমরা ফোকাস করছি।’

লাল-নীল-গেরুয়া…! ‘রঙ’ ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা ‘খাচ্ছে’? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম ‘সংবাদ’!

‘ব্রেকিং’ আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের।

কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে ‘রঙ’ লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে ‘ফেক’ তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই ‘ফ্রি’ নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.


করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।

সংবাদ সূত্র

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on email