Skip to content

একসময় পা রেখেছিলেন অমিতাভ, কালের নিয়মে এলিট স্মৃতি হয়ে মিশল মাটিতে

একসময় পা রেখেছিলেন অমিতাভ, কালের নিয়মে এলিট স্মৃতি হয়ে মিশল মাটিতে

কলকাতা, 13 ফেব্রুয়ারি: মাটিতে মিশল 84 বছরের ইতিহাস ৷ এসএন ব্যানার্জি রোডের উপর সিঙ্গল স্ক্রিন থিয়েটার ‘এলিট’ ৷ কালের নিয়মে একাধিক ইতিহাসের সাক্ষী এই সিনেমা হলকেও এবার হারালেন তিলোত্তমার সিনেপ্রেমীরা ৷ শুরু হল ধর্মতলা চত্বরের বিখ্যাত ল্যান্ডমার্ক এলিট সিনেমা হল ভাঙার কাজ ৷

বেশ কয়েক বছর আগেই কলকাতার বন্ধ সিঙ্গল স্ক্রিন সিনেমা হলের তালিকায় নিজের নাম তুলে ফেলেছিল এলিট সিনেমা। এবার কংক্রিটের শরীরটুকু মিশিয়ে দেওয়া হলো মাটিতে। পে-লোডার দিয়ে ভেঙে ফেলা হল কলকাতার অন্যতম ঐতিহ্যবাহী এলিট সিনেমা হল। সেখানে মাথা তুলবে নতুন শপিং মল, খবর তেমনটাই। একটি বহুজাতিক সংস্থা ওই জায়গাটিতে শপিং মল করবে বলে জানা গিয়েছ ৷ কলকাতা কর্পোরেশন সূত্রে খবর, সিনেমা হলটির জায়গায় একটি বহুতল নির্মাণ হবে। সেই অনুমোদন মেলার পর কাজ শুরু হয়েছে। সম্প্রতি হলটির দেওয়াল ও সামনের অংশ ভেঙে ফেলা হয়েছে।

পরাধীন ভারতে 1940 সালের 2 অগস্ট এলিট সিনেমা হলটি চালু হয়েছিল। সেই সময় খ্যাতনামা একাধিক ইংরেজি ছবি সেখানে দেখানো হয়েছে। পরবর্তী সময় বেশিরভাগ হিন্দি সিনেমা দেখানো হত। কলকাতা, মুম্বইয়ের নামজাদা তারকাদের আসা-যাওয়া চলত হামেশাই। শোনা যায়, এই হলে অমিতাভ বচ্চন-সহ হিন্দি সিনেমার অনেক নামীদামি অভিনেতাই পা রেখেছেন। এক হাজারের বেশি আসন ছিল এই প্রেক্ষাগৃহে। একসময় রমরমিয়ে চলা এই সিঙ্গল স্ক্রিন ক্রমশ যেন বয়সের ভারে ন্যুব্জ হয়ে পড়ে।

দীর্ঘ 78 বছর পথ চলার পর 2018 সালে হলের গেটে তালা পড়ে। অবশেষে গ্লোব, লাইট হাউস, নিউ অ্যাম্পায়ার, প্যারাডাইস, মেট্রো সিনেমার মত বন্ধ হলের তালিকায় নাম লেখাল এলিট সিনেমা হলও। করোনাকালে কলকাতা কর্পোরেশন এই বন্ধ হল খুলে টিকাকরণ কেন্দ্র বানিয়েছিল। শেষমেষ মালিকানা যায় বহুজাতিক সংস্থার হাতে। শোনা যাচ্ছে, তারাই এখানে গড়ে তুলবে এক বিরাট শপিং মল।

আরও পড়ুন:

1. রাজবাড়িতেই ফিরছে মঞ্জুলিকা বিদ্যা-কার্তিক, ‘ভুলভুলাইয়া 3’ মুক্তির তারিখ প্রকাশ্যে

2. এক টিকিটেই ছবি দেখবেন যুগলে, ভ্যালেন্টাইনস ডে উপলক্ষে অভিনব ঘোষণা শাহিদের ছবির নির্মাতাদের

3. 179 বার বদলেছে চিত্রনাট্য, ‘টুয়েলভথ ফেল’ ছবির সংলাপ মনে রাখাই চ্যালেঞ্জ ছিল বিক্রান্তের

বার্তা সূত্র

সর্বাধিক পঠিত

সর্বশেষ সংবাদ