Skip to content

একরাতে মঙ্গলকোটের ছটি মন্দিরে চুরি




জহিরুল হক,সংবাদদাতাঃ- নিরাপদ বলে অতীতে দেব মন্দিরগুলো ব্যাংক হিসাবে ব্যবহৃত হতো। কিন্তু আধুনিক যুগে সেই মন্দিরও রক্ষা পেলনা দুষ্কৃতিদের হাত থেকে। গত রবিবার গভীর রাতে পরপর ছয়টি মন্দিরে দুঃসাহসিক চুরির ঘটনা ঘটে। ঘটনাটি মঙ্গলকোট থানার গোবর্ধনপুর গ্রামের। জানা যাচ্ছে চ্যাটার্জ্জী পাড়ায় চারটি, ঘোষপাড়ায় একটি এবং সরকার পাড়ায় একটি মন্দিরে এই চুরির ঘটনা ঘটেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে রবিবার রাতে গোবিন্দপুর গ্রামে শ্মশান কালীর পুজো ছিল। স্বাভাবিক ভাবেই গ্রামবাসীরা মেতে ছিল পুজোর আনন্দে। যেহেতু কালীপুজো তাই অনেক রাত পর্যন্ত তারা জেগেও ছিল। তারা ভাবতেই পারেনি তাদের মন্দিরে চুরি হতে পারে। অথচ নিত্য অভ্যাস মত সোমবার সকালে স্থানীয় বাসিন্দারা মন্দিরে প্রণাম করতে গিয়ে দেখে ছটি মন্দিরের দরজা তালা ভাঙ্গা অবস্থায় পড়ে রয়েছে। দু’একজন মন্দিরের ভিতরে প্রবেশ করে দেখে মন্দিরে দেব-দেবীর সোনা-রুপোর গহনা, কাঁসা-পিতলের বাসন পত্র, প্রনামী বাক্সের টাকা-পয়সা সব লুঠ করে নিয়ে গিয়েছে দুস্কৃতিরা। গ্রামবাসীদের ধারণা সব মিলিয়ে কয়েক লক্ষ টাকার সামগ্রী লুঠ হয়ে গেছে। ইতিমধ্যে চুরির কথা জানতে পেরে গ্রামবাসীরা মন্দিরগুলির সামনে ভিড় করে। এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে।

খবর পেয়ে মঙ্গলকোট থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে হাজির হলে গ্রামবাসীরা দুষ্কৃতিদের গ্রেপ্তারের দাবী তোলে। দুষ্কৃতীদের অতি দ্রুত ধরা হবে বলে পুলিশ আশ্বাস দেয়।



বার্তা সূত্র