Skip to content

আমরা চাই বিএনপি পূর্ণশক্তিতে নির্বাচনে অংশ নিক: তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ

আমরা চাই বিএনপি পূর্ণশক্তিতে নির্বাচনে অংশ নিক: তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও বাংলাদেশের তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, “আমরা চাই আগামী নির্বাচনে বিএনপি পূর্ণশক্তি নিয়ে অংশগ্রহণ করুক, কিন্তু তারা পালিয়ে যাওয়ার ছুতো তৈরি করতে চায়।” শুক্রবার (১৬ জুন) দুপুরে রাজধানীর মিন্টো রোডে তার বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এ কথা বলেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, “আগামী জাতীয় নির্বাচন যাতে সবার অংশগ্রহণে একটি অবাধ, নিরপেক্ষ স্বচ্ছ ও উৎসবমুখর নির্বাচন হয়, সেটা আমরা চাই। কিন্তু, দুঃখজনক হলেও সত্য, বিএনপি সবসময় নির্বাচন থেকে পালিয়ে যায়।”

তিনি বলেন, “বিএনপির উদ্দেশ্য নির্বাচন করা নয়। নির্বাচন ভন্ডুল করা বা প্রশ্নবিদ্ধ করাই তাদের উদ্দেশ্য। এর কারণ, বিএনপির বক্তব্যে মনে হয়, তারা নির্বাচনে জেতার গ্যারান্টি চায়। তা পেলে অংশ নেবে, না পেলে নয়। কিন্তু, এ গ্যারান্টি তো জনগণ বা সরকার বা নির্বাচন কমিশন কেউই দিতে পারবে না। আর, বিএনপি নির্বাচন বর্জন করলেও জনগণ যে ব্যাপকভাবে অংশ নেয়, সেটা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে প্রমাণ হয়েছে। কোনো দল অংশ নিল কিনা, তার চেয়ে বড় কথা নির্বাচনে জনগণের ব্যাপক অংশগ্রহণ।”

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, “তবে বিএনপি একটি বড় দল; তারা রাষ্ট্রক্ষমতায় ছিলো। আমি তাদের নির্বাচনে অংশ নেয়ার অনুরোধ জানাবো। কারণ আমরা ওয়াকওভার চাই না, আমরা খেলে জিততে চাই।”

এদিকে, বৃহস্পতিবার (১৫ জুন) গুলশান কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অভিযোগ করেন যে সরকার আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও বিচার বিভাগকে ব্যবহার করে আগামী নির্বাচনের আগে বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের মাঠ ছাড়তে বাধ্য করছে।

মির্জা ফখরুল বলেন, “বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে নতুন করে মিথ্যা মামলা দেয়া হচ্ছে। আবার পুরানো মামলাগুলো পুনরুজ্জীবিত হওয়াও বিস্ময়কর। আগামী নির্বাচনের আগে বিএনপিকে মাঠ থেকে বের করে দেয়ার লক্ষ্যে তাদের বিরুদ্ধে মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির চেষ্টা চলছে।”

মির্জা ফখরুল আরো বলেন, সরকারের ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের বিভিন্ন মিথ্যা ও বানোয়াট মামলায় ফাঁসিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। সরকার নানা কৌশলে বিএনপি নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে নানা দমন-পীড়ন বাড়িয়েছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

বিএনপি মহাসচিব অভিযোগ করেন, “নির্বাচন যতই ঘনিয়ে আসছে, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও বিচার বিভাগকে ব্যবহার করে মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে বিএনপিকে রাজনৈতিক মাঠ থেকে নির্মূল করা হচ্ছে। হাইকোর্টের আদেশ অমান্য করে, মামলায় তাদের নাম অন্তর্ভুক্ত করা হচ্ছে। কোনো (বিরোধী) প্রার্থী না থাকলে তারা (আওয়ামী লীগ) তাদের লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারবে। তাদের লক্ষ্য ত্রুটিপূর্ণ নির্বাচন করে ভোট না দিয়ে আবার ক্ষমতা দখল করা।”

সূত্র: ভয়েজ অব আমেরিকা