Skip to content

আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের মধ্যস্থতায় বিএনপির নির্বাচনে অংশ নেয়া উচিত: বিএনপি নেতা হাফিজ

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান, অবসরপ্রাপ্ত মেজর হাফিজউদ্দিন আহমেদ বলেছেন, “আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের মধ্যস্থতায় বিএনপির আগামী জাতীয় নির্বাচনে অংশগ্রহণ করা উচিত।” মঙ্গলবার (৭ নভেম্বর) তিনি সাংবাদিকদেিএ কথা জানান।

তিনি জানান, এখনো তিনি রাজনৈতিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছেন এবং অসুস্থ থাকায় চিকিৎসার জন্য বিদেশ যাবেন। বলেন, “বিএনপির উচিত আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের মধ্যস্থতায় নির্বাচনে যাওয়া। বিএনপি নির্বাচনে যোগ দিলে আমি সেই নির্বাচনে অংশ নেবো।”

নতুন দলে যোগ দিতে যাচ্ছেন বলে ক্ষমতাসীন দলের নেতাদের মন্তব্যের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান, অবসরপ্রাপ্ত মেজর হাফিজউদ্দিন কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি। তবে, তিনি বলেন, “আমি শুধু বলতে পারি যে আমি রাজনৈতিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছি…আমি শারীরিকভাবে অসুস্থ। আমি এই মুহূর্তে রাজনীতি নিয়ে ভাবছি না।”

৭৯ বছর বয়সী হাফিজ বিভিন্ন স্বাস্থ্য জটিলতার জন্য দুই মাস আগে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসা নিয়েছেন। অসুস্থ থাকায় চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানান তিনি। বলেন, “আমি সেখানে যাওয়ার জন্য ভিসার আবেদন করবো।”

অবসরপ্রাপ্ত মেজর হাফিজ ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে, বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের নেতৃত্বাধীন জেড ফোর্সের অধীনে যুদ্ধ করেন। সাহসিকতার জন্য তিনি বাংলাদেশের তৃতীয় সর্বোচ্চ বীরত্ব পুরস্কার, বীর বিক্রমে ভূষিত হন। সেনাবাহিনী থেকে অবসর গ্রহণের পর তিনি রাজনীতিতে যোগ দেন এবং ভোলা-৩ (লালমোহন-তজুমদ্দিন) আসন থেকে ছয় বার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

২০১৫ সালের ১৪ ডিসেম্বর দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে হাফিজকে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর স্বাক্ষরিত একটি কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়। পরে, এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি তাকে দেয়া কারণ দর্শানোর নোটিশে উল্লিখিত অভিযোগকে অসত্য বলে অভিহিত করেন।

তিনি বলেন যে পার্টির নোটিশের ভাষা আক্রমণাত্মক এবং তা সৌজন্য ও প্রটোকল বিরোধী। তার বিরুদ্ধে এ ধরনের নোটিশ জারি করায় তিনি অপমানিত বোধ করেছেন।

সূত্র: ভয়েজ অব আমেরিকা

সর্বাধিক পঠিত

সর্বশেষ সংবাদ