Skip to content

আকাশসীমা ব্যবহারের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে চুক্তি করছে পাকিস্তান

আকাশসীমা ব্যবহারের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে চুক্তি করছে পাকিস্তান

শনিবার পাকিস্তান গণমাধ্যমের দাবি যে প্রতিবেশী আফগানিস্তানে সন্ত্রাসবাদ বিরোধী সামরিক অভিযান চালানোর জন্য যুক্তরাষ্ট্র তাদের আকাশসীমা ব্যবহারের জন্য একটি চুক্তি করছে তা অস্বীকার করা থেকে বিরত ছিল।

আফগানিস্তানের মাটিতে সক্রিয় সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে সামরিক ও গোয়েন্দা অভিযান পরিচালনার জন্য পাকিস্তানের আকাশসীমা ব্যবহারের জন্য ওয়াশিংটন ইসলামাবাদের সঙ্গে “আনুষ্ঠানিক চুক্তি সম্পাদনের কাছাকাছি” সিএনএন-এর এমন প্রতিবেদনের একদিন পরই এই বিবৃতি দেয়া হলো।

এক বিবৃতিতে পররাষ্ট্র মন্ত্রকের মুখপাত্র অসীম ইফতিখার আহমাদ বলেন, “এ ধরনের কোনো চুক্তি হয়নি।”

অসীম ইফতিখার আহমেদ আরও বলেন, “আঞ্চলিক নিরাপত্তা ও সন্ত্রাসবাদ দমনে পাকিস্তান ও যুক্তরাষ্ট্রের দীর্ঘদিনের সহযোগিতা রয়েছে এবং উভয় পক্ষ নিয়মিত পরামর্শ করছে।” তিনি এর চাইতে বিস্তারিত আর কিছু বলেননি।

আমেরিকান নিউজ নেটওয়ার্ক, সিএনএনের প্রতিবেদনে বলা হয়, শুক্রবার কংগ্রেস সদস্যদের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রশাসনের পক্ষ থেকে একটি গোপন ব্রিফিং দেয়া হয়। প্রশাসনের তিনটি সূত্র যারা এই গোপন ব্রিফিং ‘এর বিষয়বস্তু সম্পর্কে অবগত তারা জানান, আলোচনা চলছিল এবং চূড়ান্ত হওয়ার আগে চুক্তির শর্তাবলী পরিবর্তন করা হতে পারে।

দুই দশক পর যুক্তরাষ্ট্র ও নেটো সেনারা আগস্টে আফগানিস্তান ত্যাগ করার পর আমেরিকান সামরিক বাহিনী যাতে ইসলামিক স্টেট গোষ্ঠীর আঞ্চলিক শাখা, যা ইসলামিক স্টেট-খোরাসান (আইএস-খোরাসান) নামে পরিচিত, এবং আফগানিস্তানের অন্যান্য সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর সাথে যুক্ত জঙ্গিদের বিরুদ্ধে সময়মতো সন্ত্রাস দমন অভিযান পরিচালনা করতে পারে সে লক্ষ্যে ওয়াশিংটন ব্যবস্থা নেয়ার চেষ্টা করছে।

সিএনএন -এর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইসলামাবাদ তার নিজস্ব সন্ত্রাসবাদবিরোধী প্রচেষ্টায় সহযোগিতার বিনিময়ে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছে।সেইসঙ্গে পাকিস্তানের ঘোর শত্রু ভারতের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নত করার সহায়তাও চেয়েছে পাকিস্তান।

সূত্র: ভয়েজ অব আমেরিকা

সর্বাধিক পঠিত

সর্বশেষ সংবাদ