আইপিএল নিয়ে বড় চমকের পথে সৌরভের বোর্ড

আইপিএল নিয়ে বড় চমকের পথে সৌরভের বোর্ড
করোনার প্রকোপ বাড়ায় স্থগিত হয়ে গেছে এবারের ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল)। চলতি বছরে আইপিএল না করতে পারলে ন্যূনতম আড়াই হাজার কোটি রুপির মতো ক্ষতি হয়ে যাবে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই)। তাই আর্থিক ক্ষতির ধাক্কা সামাল দিতেই পুরো টুর্নামেন্ট করতে বদ্ধপরিকর সৌরভ গাঙ্গুলির বোর্ড।বিসিসিআইয়ের গভর্নিং কাউন্সিলের চেয়ারম্যান ব্রিজেশ প্যাটেল জানিয়েছিলেন, পরিস্থিতি বিবেচনা করে ক্রিকেটারদের সুবিধা অনুযায়ী টি-২০ বিশ্বকাপের আগে বা পরে আইপিএলের বাকি ম্যাচগুলো হতে পারে। কিন্তু কোথায় হবে বাকি ম্যাচগুলো? সেটাও একটা বড় প্রশ্ন।

তবে কিছুদিন পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলেও আবার ভারতের মাঠে আইপিএল আয়োজন সম্ভব নয়। ফলে বিকল্প হিসেবে বিদেশের মাঠেই বাকি আইপিএলের আয়োজন করতে পারে বিসিসিআই। বোর্ডের ভেতরে ভেনু হিসেবে বেশ কিছু জায়গার নাম উঠে আসছে।

এমনিতে বোর্ডের ব্যাকআপ ভেন্যু থাকে সংযুক্ত আরব আমিরশাহি। তবে টি-২০ বিশ্বকাপ সম্ভবত ভারত এবার আরব মুলুকেই করতে চলেছে। তার আগে সেখানে আইপিএল করার ঝক্কি নেবে না বোর্ড। সেক্ষেত্রে সৌরভের বোর্ডের কাছে জোড়া অপশন ইংল্যান্ড এবং অস্ট্রেলিয়া।

এমনটাই টাইমস অফ ইন্ডিয়াকে জানিয়েছেন বোর্ডের এক শীর্ষকর্তা। তিনি বলেন, ‘বিদেশেই বাকি আইপিএল হবে। কিছু কিছু অপশন নিয়ে বোর্ডের ভেতরে নাড়াচাড়া হচ্ছে। বিসিসিআইকে কেবল এবার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে হবে।’

চলতি বছরের অক্টোবর-নভেম্বরেই টি২০ বিশ্বকাপ আয়োজন করার কথা ভারতের। তবে অতিমারীর পরিপ্রেক্ষিতে বিদেশে তা চলে যাওয়ার জোরালো সম্ভবনা রয়েছে। টি২০ ওয়ার্ল্ড কাপ আয়োজনের জন্য বোর্ডের হাতে রয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরশাহি। আর টি-২০ বিশ্বকাপ আরবে পাড়ি দিলে সেখানেই আইপিএলের বাকি অর্ধেক হওয়াটাই স্বাভাবিক। তবে সমস্যা অন্যত্র। অক্টোবর-নভেম্বরে টি২০ বিশ্বকাপ হওয়ার আগে সেপ্টেম্বর মাসে ইউএই-র তাপমাত্রা বেশ বেশি থাকে। ঠাণ্ডা পড়তে পড়তে সেই অক্টোবরের শেষ সপ্তাহ! গরম প্যাচপ্যাচে পরিবেশে আইপিএলে আয়োজনে রাজি নয় বোর্ডের একাংশ।

এমন অবস্থাতেই ইংল্যান্ডের নাম বাকি ৩১ ম্যাচ আয়োজনের জন্য উঠেছে। আবহাওয়া দুরন্ত হওয়ার পাশাপাশি ভারত সেই সময় টেস্ট সিরিজও খেলবে বিলেতে। আর এক ভেন্যু থেকে অন্য ভেন্যুতে যাতায়াতগত সুবিধা রয়েছে। বোর্ডের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, আইপিএলের টাইম জোন এডজাস্ট করে ম্যাচ সম্প্রচারে রাজি সম্প্রচার কারী স্টার স্পোর্টসও।

তবে ইংল্যান্ডই একমাত্র ভেন্যু নয়। অস্ট্রেলিয়ার নামও উঠেছে। আগামী বছর অস্ট্রেলিয়ায় টি২০ বিশ্বকাপের আসর বসার কথা। বিসিসিআই সেই বিশ্বকাপের সেই হোস্টিং রাইটস অদলবদল করে নিতে চাইছে। যদি তা সম্ভব হয়, তাহলে ভারতও প্রতিদানস্বরূপ অজি বোর্ডকে আইপিএল আয়োজনের জন্য ভেন্যু ব্যবহারের প্রস্তাব দিতে পারে।

বোর্ডের এক সূত্র জানিয়েছে, অস্ট্রেলিয়া সরকার যদি রাজি থাকে, তাহলে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া এই প্রস্তবে রাজি হবে। ভারতের টাইম জোনের সঙ্গে মাত্র সাড়ে তিন ঘণ্টার ব্যবধান পার্থের। যদি সবকিছু ঠিকঠাক থাকে, তাহলে আইপিএলের দ্বিতীয় পর্ব পার্থে দেখা যেতে পারে। তবে সবকিছুই নির্ভর করছে অস্ট্রেলীয় সরকারের অনুমতি এবং সম্প্রচারকারী সংস্থা রাজি হলে, তবেই।

তবে ঘটনা যাই হোক, আইপিএলে বিদেশি ক্রিকেটাররা এবার যা ঝক্কিতে পড়ল, তাতে ভারতে যে আইপিএলের দ্বিতীয় আসর বসছে না, তা এখন থেকেই লিখে দেওয়া যায়। খবর ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের।

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on email