Skip to content

অর্ধশত গানে ‘কোটিপতি’ ইমরান

jagonews24

নাটক, টেলিছবি, গান-এসব এখন ভিউয়ের মাপকাঠিতে জনপ্রিয়তা নির্ধারণ করা হয়। নতুন প্রজন্মের প্রায় সবাই এই ভিউয়ের নিরিখেই খুঁজে নেন তাদের প্রিয় তারকা। সময়-বাস্তবতার আলোকে বিভিন্ন অঙ্গনের শিল্পীরাও এখন ঝুঁকছেন ভিউয়ের দিকে।

এই প্রজন্মের শ্রোতাপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী ইমরান মাহমুদুলও এর ব্যতিক্রমন নন। তিনি তার অর্ধশত গানের কোটি ভিউ অতিক্রম করা একটি তালিকা প্রকাশ করেছেন।

এ তালিকা প্রকাশ করে ইমরান তার ফেবুকে একটি পোস্ট দিয়েছেন। পোস্টে তিনি লিখেছেন, আপনাদের সকলের ভালোবাসায় আমার গাওয়া ৫০টি গান পা রাখল কোটির ঘরে। শুরুটা হয়েছিলো ২০১৫ সালে ‘বলতে বলতে চলতে চলতে’ গানের মাধ্যমে। এটি ছিল যে কোনো বাংলা গানের ইতিহাসে প্রথম ১ কোটি ভিউ হওয়া কোন গান। ‘বলতে বলতে চলতে চলতে’ এই গানের আগে কলকাতা এবং বাংলাদেশের আর কোনো গান কোটির ঘরে পা রাখেনি। বিষয়টি একজন বাংলাদেশি হিসেবে আমার জন্য অনেক গর্বের।

ইমরান তার গানের যাত্রা শুরুর প্রসঙ্গে লেখেন, ২০০৮ সালে চ্যানেল আই সেরাকণ্ঠের মাধ্যমে সংগীতাঙ্গনে পা রাখি। এরপর প্রকাশিত হয় আমার একাধিক একক এবং মিশ্র অ্যালবাম। সেই অ্যালবামের গানগুলোও আপনারা গ্রহণ করেছিলেন খুব ভালোভাবে। যার মধ্যে আছে ‘দূরে দূরে’, ‘আরাধনা’, ‘মানে না ম’সহ আরও অনেক গান। সময়ের বিবর্তনে অ্যালবামের ফরম্যাট থেকে বের হয়ে ইউটিউব প্ল্যাটফর্মে প্রবেশ করে মিউজিক ইন্ডাস্ট্রি এবং আমি অত্যন্ত ভাগ্যবান।

কেন ভাগ্যবান তা উল্লেখ করে ইমরান স্ট্যাটাসে উল্লেখ করেন, কারণ গান প্রকাশের ধরনে পরিবর্তন এলেও আমার প্রতি আপনাদের যে ভালোবাসা তাতে এক বিন্দুও পরিবর্তন আসেনি যার প্রতিফলন আমার এই ৫০টি গান ‘কোটি’র মাইলফলক স্পর্শ করা। বাংলাদেশের আর কোনো সংগীতশিল্পীর এতগুলো গান কোটির উপরে ভিউজ নেই। আসলে ভিউজ কখনোই একটি গানের সব কিছু হতে পারে না তারপরও জেনারেশনের নতুন এই ধারাটাকে জয় করতে পারাটা আমার জন্য আনন্দের এবং তাল মিলিয়ে চলাটা অনেক বেশি চ্যালেঞ্জের।

jagonews24

ইমরান তার শ্রোতা-অনুরাগীদের প্রতি ভালোবাসা ও কৃতজ্ঞতা জানিয়ে লেখেন, আশা করি ভবিষ্যতেও আপনাদের কাছ থেকে এমন ভালোবাসা পেয়ে যাব। যা আমাকে আরও ভালো ভালো গান উপহার দিতে অনুপ্রেরণা যোগাবে। ৫০ গান কোটির মাইলফলক করার অর্জন আমার একার নয়। এই অর্জন উক্ত গান সংশ্লিষ্ট সম্মানিত সকল গীতিকার, সুরকার, সহশিল্পী সংগীতপরিচালক, মিউজিক ভিডিও নির্মাতার। পাশাপাশি গানগুলোর প্রযোজক এবং প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান, গান সংশ্লিষ্ট সিনেমাগুলোর পরিচালক, নায়ক, নায়িকা, প্রযোজক, আমার পরিবার, বন্ধু, স্বজন, শুভাকাঙ্ক্ষী এবং সকল শ্রোতার।

ইমরান মাহমুদুল তার স্ট্যাটাসে আরও লেখেন, আশা করি আপনাদের এই ভালোবাসা নিয়েই সংগীতের পথে আমার যাত্রা চলমান থাকবে। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন যাতে আমি সুস্থ থাকি এবং আপনাদের পছন্দসই গান আরও উপহার দিতে পারি ভবিষ্যতে। সবাইকে অসংখ্য অসংখ্য ধন্যবাদ। আপনাদের ইমরান।

স্ট্যাটাসের সঙ্গে ইমরান তার কোটি ভিউ ছাড়িয়ে যাওয়া ৫০টি গানের একটি প্রকাশ করেছেন।

এমএমএফ/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।

বার্তা সূত্র